বন্ধু হিসেবে আশা করছেন ব্রাভো, ধোনি বিশ্বকাপে খেলবেন

0
168
ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি

ভিন্ন ভিন্ন দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেললেও, আইপিএলের কল্যাণে দুজনের বন্ধুত্ব অমলিন। বলা হচ্ছে ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি ও সাবেক ক্যারিবীয় অধিনায়ক ডোয়াইন ব্রাভোর কথা। বহুদিন ধরে আইপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি চেন্নাই সুপার কিংসে ধোনির অধিনায়কত্বে খেলছেন ব্রাভো। দুজনের মধ্যে সম্পর্ক তাই অন্য যেকোনো সতীর্থের চেয়ে একটু বেশিই গাঢ়। বন্ধু আবারও বিশ্বকাপে ভারতের হয়ে খেলবে, এমনটাই আশা করছেন ব্রাভো।

কিছুদিন আগে ব্রাভো নিজেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার ঘোষণা দিয়েছেন। ২০১৬ সালের পর আর কখনো ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে না খেলা ব্রাভো তখন বোর্ডের ওপর অভিমান করে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। সম্প্রতি উইন্ডিজ বোর্ডে রদবদল এসেছে, ফলে জাতীয় দলে ফিরতেও ব্রাভোর আর কোনো বাধা ছিল না। আশা করা হচ্ছে, আগামী বছর অস্ট্রেলিয়াতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দেখা যাবে তাঁকে। তবে শুধু নিজেই নয়, ব্রাভো আশা করছেন, প্রিয়বন্ধু মহেন্দ্র সিং ধোনিও আবার জাতীয় দলের হয়ে খেলা শুরু করবেন, খেলবেন বিশ্বকাপ।

কিছু দিন আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে মনোমালিন্য মিটিয়ে জাতীয় দলের হয়ে আবারও খেলার ঘোষণা দিয়েছেন অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভো। আগামী বছর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দিকে চোখ তাঁর। আশা করছেন, তাঁর মতো মহেন্দ্র সিং ধোনিকেও আবার জাতীয় দলের হয়ে দেখা যাবে, আবারও ধোনিকে বিশ্বকাপে খেলতে দেখা যাবে

বিশ্বকাপের পর থেকে ধোনিকে ক্রিকেট মাঠে আর দেখা যায়নি। ধোনি কী অবসর নেবেন, না নেবেন না, তা নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা। তবে ব্রাভো নিশ্চিত, ধোনিকে বিশ্বকাপে দেখা যাবে, ‘ধোনি অবসর নেয়নি। আমার মনে হয়, টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে অবধ্যই ওকে খেলতে দেখা যাবে। মাঠের বাইরে কী হল না হল, ধোনি তা কখনও পাত্তা দেয় না। ও আমাদের বলে, ভয় পেও না। নিজেদের ক্ষমতায় বিশ্বাস রাখ।’

কেন দরে দাঁড়িয়েছিলেন, কেনই বা ফিরলেন, এ নিয়ে ব্যাখ্যাও দিয়েছেন ব্রাভো, ‘শারীরিক দিক থেকে আমি বেশ ফিট। ক্রিকেটকে এখনও অনেক কিছু দেওয়ার আছে আমার। মাঠের বাইরের রাজনীতির জন্যই আমি জাতীয় দল থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলাম। এখন মাঠের ভিতরে ও বাইরে নেতৃত্বের পরিবর্তন হয়েছে। তাই মনে হল, ফিরে আসার এটাই সেরা সময়। আমাদের দলটা অত্যন্ত প্রতিভাবান। তরুণ ক্রিকেটারদের সঠিক দিকে পরিচালিত করতে হবে, তাদের প্রতিভার সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে হবে। আন্দ্রে রাসেল, সুনীল নারাইন এবং আমি দলে ঢুকলে এবং তরুণ ক্রিকেটারদের প্রতিভাকে ঠিকঠাক পরিচর্যা করলে যে কোনো দলকে হারানোর ক্ষমতা রাখি আমরা।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে