বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে লাল কার্ড প্রদর্শন

0
189

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির পদত্যাগের দাবিতে ৯ম দিনের মতো শিক্ষার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে।

শুক্রবার বিকেল ৫ টায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসের জয় বাংলা চত্বরে ভিসিকে লাল কার্ড প্রদর্শন করেছেন। ক্যাম্পাসে হাজার হাজার শিক্ষার্থী জড়ো হয়ে এ কার্ড প্রদর্শন করেন। এ সময় তারা ভিসির পদত্যাগের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

এর আগে এ দিন বেলা সাড়ে ১১ টায় ভিসির পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসের ওই চত্বরেই ভিসির কুশপুত্তলিকা দাহ করে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় গঠিত ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রেজিষ্ট্রার প্রফেসর ড. নূরউদ্দিন অহমেদের কাছে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছে।

তদন্ত কমিটির প্রধান প্রফেসর ড. আব্দুর রহিম খান বলেন, এ তদন্ত প্রতিবেদনে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সহযোগিতা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে।

রেজিষ্ট্রার প্রফেসর ড. নূরউদ্দিন অহমেদ প্রতিবেদন পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেবে।

শিক্ষার্থী মেহেদেী হাসান জানান, ভিসির পতন না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। কোন কিছুই আমাদের আন্দোলন দমাতে পারবে না।

শুক্রবার রাত ৮টায় ভিসির পদত্যাগের দাবিতে ক্যাম্পাসে মশাল মিছিল হবে বলে ওই শিক্ষার্থী জানিয়েছেন।

গত ১১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্রী ফাতেমা-তুজ-জিনিয়াকে অন্যায়ভাবে বহিষ্কার করে বিশবিদ্যালয় প্রশাসন। পরে কঠোর সমালোচনার মুখে ১৮ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এ বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহার করে নেয়। ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষার্থীরা ভিসি পতন আন্দোলন শুরু করেন। ২১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে সকাল ১০ টার মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়। এ দিন ভিসি সমর্থিত বহিরাগতের হামলায় ২০ শিক্ষার্থী আহত হয়। তারপর থেকে ভিসি পতন আন্দোলনের অনড় অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.