বঙ্গবন্ধুর নামে সড়ক হচ্ছে ফিলিস্তিনে

0
146
ছবি বাসস

বাঙালির স্বাধীনতা আন্দোলনের নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে ফিলিস্তিনে একটি সড়কের নামকরণ করা হচ্ছে।

আজারবাইজানে অষ্টাদশ ন্যাম শীর্ষ সম্মেলনের ফাঁকে শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতে এই তথ্য জানান ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ মালকি। বঙ্গবন্ধুর নামে পশ্চিম তীরের হেবরন শহরের একটি সড়কের নামকরণ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি। খবর বাসস, ইউএনবির।

বাকু কংগ্রেস সেন্টারে ওই বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক জানান, ওই সড়ক উদ্বোধন করতে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে ফিলিস্তিনে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী। স্বাধীন ভূখণ্ডের জন্য অর্ধশতকের বেশি সময় ধরে সংগ্রামরত ফিলিস্তিনিদের অধিকারের বিষয়ে বঙ্গবন্ধু সব সময়ই সোচ্চার ছিলেন। শেখ হাসিনাও জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মঞ্চে ফিলিস্তিনিদের স্বাধীনতার পক্ষে কথা বলেন।

নেপালের সঙ্গে পিটিএ সইয়ে গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর: বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে অগ্রাধিকার বাণিজ্য চুক্তি (পিটিএ) সই করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার বাকু কংগ্রেস সেন্টারে নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে ওই চুক্তি করার ওপর জোর দেন শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পিটিএ শেষ করে ফেললে দুই দেশের বাণিজ্য বাড়বে। শহীদুল হক বলেন, দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে আলোচনায় প্রধানত বাণিজ্য, কানেক্টিভিটি আর বিবিআইএন (বাংলাদেশ, ভুটান, ইন্ডিয়া, নেপাল) গুরুত্ব পেয়েছে। দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ায় শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। নভেম্বরে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতির নেপাল সফরের বিষয়েও আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আজারবাইজানের শহীদদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল আজারবাইজানের শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। প্রধানমন্ত্রী বিকেলে শহীদদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে নির্মিত স্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পুষ্পস্তবক অর্পণের পর শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শেখ হাসিনা কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ও পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হকসহ প্রধানমন্ত্রীর অন্য সফর সঙ্গীরা এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

ঢাকায় আবারও মিশন খুলবে আলজেরিয়া: বাংলাদেশের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণে আলজেরিয়া ঢাকায় আবারও কূটনৈতিক মিশন চালু করবে। দেশটির ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট আবদেলকাদের বেনসালাহ শুক্রবার বাকু কংগ্রেস সেন্টারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে এ কথা বলেন।

বৈঠকের পর পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। তিনি বলেন, একসময় বাংলাদেশে আলজেরিয়ার কূটনৈতিক মিশন ছিল। পরে তা বন্ধ হয়ে যায়। বৈঠকে বেনসালাহ বলেন, ‘আমরা ঢাকায় আমাদের মিশনটি পুনরায় খুলব। আমরা মনে করি, বিভিন্ন ইস্যুতে বিশেষ করে ব্যবসা ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে আমরা একই অবস্থানে রয়েছি। আমরা বাংলাদেশের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে চাই।’

বাংলাদেশে মিশন ফের চালুর সিদ্ধান্তে প্রধানমন্ত্রী আলজেরিয়ার প্রেসিডেন্টকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, তার সরকার এ বিষয়ে সব ধরনের সহযোগিতা করবে। জোট নিরপেক্ষ আন্দোলন-ন্যামের অষ্টাদশ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে বৃহস্পতিবার বাকু গেছেন শেখ হাসিনা। শনিবার সকালে বাকু কংগ্রেস সেন্টারে ন্যামের সাধারণ বিতর্কে অংশ নেন তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে