ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়বেন প্যারিসের প্রথম নারী মেয়র

0
46
প্যারিসের মেয়র আন্নে হিদালগো, ছবি: এএফপি

আন্নের ঘোষণার পরপরই দেশটির কট্টর ডানপন্থী নেত্রী মারি লো পেন তৃতীয় দফায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়াইয়ের জন্য প্রচারে নামেন।

এখন পর্যন্ত যে জনমত জরিপ, তাতে দেখা যায়, আগামী বছরের এপ্রিলে অনুষ্ঠেয় প্রথম দফার ভোটে শীর্ষে থাকবেন মাখোঁ ও লো পেন। তারপর দ্বিতীয় দফার ভোটে ২০১৭ সালের নির্বাচনেরই পুনরাবৃত্তি ঘটতে পারে। অর্থাৎ মাখোঁ আবার ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে পারেন।

ফ্রান্সে প্রেসিডেন্ট পদে প্রধান দুই দলের আধিপত্য চলে আসছিল। ২০১৭ সালের নির্বাচনে সেই ধারা ভেঙে চমক দেখান মধ্যপন্থী মাখোঁ। সাবেক এই ব্যাংকার ২০১৭ সালের নির্বাচনে ৬৬ দশমিক ১ শতাংশ ভোট পেয়ে ফ্রান্সের সবচেয়ে কম বয়সী প্রেসিডেন্ট হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেন। দ্বিতীয় দফার ভোটে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী লো পেন পেয়েছিলেন ৩৩ দশমিক ৯ শতাংশ।

আন্নে চলতি মাসের শেষের দিকে তাঁর সোশ্যালিস্ট পার্টি থেকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর মনোনয়ন পেতে পারেন। কিন্তু তাঁর প্রার্থিতার পক্ষে বিভক্ত বামদের একত্র করতে তাঁকে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হতে পারে। তা ছাড়া মাখোঁর বিরুদ্ধে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে হলেও তাঁকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।

আন্নে তাঁর প্রার্থিতা ঘোষণা করে সবুজ অর্থনীতি ও সামাজিক ইস্যুর প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও আবাসনের ক্ষেত্রে অধিক ব্যয়ের পক্ষে তাঁর অবস্থান ব্যক্ত করেছেন।

স্প্যানিশ-ফ্রেঞ্চ রাজনীতিক আন্নে ২০১৪ সাল থেকে প্যারিসের মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। সোশ্যালিস্ট পার্টির এই সদস্য প্যারিসের প্রথম নারী মেয়র।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে