ফিলিপাইনে ডেঙ্গুকে ‘জাতীয় মহামারি’ ঘোষণা

0
939
ফিলিপাইনে ডেঙ্গুতে ২০১৯ সালে অন্তত ৬২২ জন মারা গেছেন। ছবি: এএফপি

ডেঙ্গুকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করেছে ফিলিপাইন সরকার। মশাবাহিত এই রোগে এ বছর দেশটিতে এখনো পর্যন্ত অন্তত ৬২২ জন প্রাণ হারানোর পর ডেঙ্গুকে ‘জাতীয় মহামারি’ হিসেবে ঘোষণা করল ফিলিপাইন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফিলিপাইনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০১৯ সালের ০১ জানুয়ারি থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত অন্তত ১ লাখ ৪৬ হাজার মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। গত বছরের এ সময়ের তুলনায় যা শতকরা ৯৮ ভাগ বেশি। আর এই সময়ের মধ্যে ডেঙ্গুতে মারা গেছেন ৬২২ জন।

কর্মকর্তারা যেন পরিস্থিতি সাপেক্ষে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিতে পারেন, সে কারণেই ডেঙ্গুকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করেছে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এ দেশটি। এর আগে ডেঙ্গুর প্রকোপের কারণে জুলাই মাসে ‘জাতীয় ডেঙ্গু সতর্কতা’ জারি করেছিল ফিলিপাইন।

ফিলিপাইনের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফ্রান্সিসকো দুকে এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘কোথায় কোন ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন তা শনাক্ত করতে এবং ডেঙ্গু মোকাবিলায় স্থানীয় প্রশাসন যেন কুইক রেসপন্স ফান্ড ব্যবহার করতে পারে, সে কারণে ডেঙ্গুকে জাতীয় মহামারি হিসেবে ঘোষণা করা হলো।’

এ বছর দেশটিতে সর্বোচ্চ ২৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছেন ওয়েস্টার্ন বিসায়াস অঞ্চলে। এ ছাড়া কালাবারজন, জামবোয়াঙ্গা পেনিনসুলা ও নর্দান মিন্দানাও অঞ্চলেও ডেঙ্গুর প্রকোপ গুরুতর হয়ে দেখা দিয়েছে।

জাতিসংঘের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) পরিসংখ্যান অনুযায়ী, প্রতি বছরই বিশ্বব্যাপী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। প্রতি বছর প্রায় ৪০ কোটি মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছেন। ১৯৭০ সালের আগে বিশ্বের মাত্র ৯টি দেশে ডেঙ্গুর অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছিল। অথচ বর্তমানে ১০০টিরও বেশি দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ ছড়িয়েছে। তুলনামূলক উষ্ণ তাপমাত্রার দেশগুলোতে ডেঙ্গুর প্রকোপ সবচেয়ে বেশি বলেও জানিয়েছে ডব্লিউএইচও।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.