পেঁয়াজের সঙ্গে এ কেমন শত্রুতা!

0
139
ফাইল ছবি

জমি বর্গা নিয়ে পেঁয়াজ চাষ করেছিলেন চাষি সেলিম হোসেন। দুই সপ্তাহ পর জমি থেকে নতুন পেঁয়াজ তোলার প্রস্তুতিও নিচ্ছিলেন তিনি। গত রোববার বিকেলে মাঠে গিয়ে তিনি দেখতে পান, পেঁয়াজের গাছগুলো নেতিয়ে পড়েছে। পরে তিনি বুঝতে পারেন, খেতে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছে।

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার জুনিয়াদহ ইউনিয়নের রণপিয়ায় এ ঘটনা ঘটে। বর্গাচাষি সেলিম রণপিয়ার আবদুল হালিমের ছেলে। এ ঘটনায় সেলিম হোসেন ভেড়ামারা থানায় রোববার রাতে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত মাসে কৃষক সেলিম জমি বর্গা নিয়ে অন্যান্য কৃষকের মতো ১৫ কাঠা জমিতে পেঁয়াজ রোপণ করেন। দুই সপ্তাহ পর পেঁয়াজ তোলার সময় হতো। কিন্তু রোববার বিকেলে মাঠে গিয়ে দেখে পান পেঁয়াজগাছগুলো নেতিয়ে পড়ে মৃতপ্রায়। ধারণা করেন, রাতে খেতে দুর্বৃত্তরা বিষ প্রয়োগ করেছে। এতে জমির সব পেঁয়াজ নষ্ট হয়ে গেছে।

সেলিম বলেন, কেউ শত্রুতা করে পেঁয়াজের খেতে বিষ দিয়েছেন। তিনি দোষীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

ভেড়ামারা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, অতিরিক্ত মাত্রায় আগাছানাশক বিষ দেওয়ার কারণে পেঁয়াজের গাছ নেতিয়ে পড়েছে। এতে পেঁয়াজের ক্ষতি হয়েছে।

এ ব্যাপারে ভেড়ামারা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শুভ্র প্রকাশ বলেন, শত্রুতা করে পেঁয়াজের খেত নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে