পুঁটিতে রোচে না, রাঘববোয়াল পছন্দ

0
208
বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১১টায় ইতিহাদ স্টেডিয়ামে গার্দিওলা-স্টার্লিং-ডি ব্রুইনাদের সিটির সঙ্গে লড়বে সুলশার-রাশফোর্ড-ম্যাগুয়ারদের ইউনাইটেড। ছবি: সংগৃহীত
মৌসুমে লিগে এখন পর্যন্ত ১৫টি ম্যাচ খেলেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এর মধ্যে এই মুহূর্তে লিগের পয়েন্ট সেরা দশে থাকা দলগুলোর বিপক্ষে ৮ ম্যাচে পেয়েছে ১৩ পয়েন্ট, পরের দশ দলের বিপক্ষে ৮ ম্যাচে পয়েন্ট ৮।

‘আমি ওদের পইপই করে বলে দিয়েছিলাম, ইউনাইটেড এসব ম্যাচ এভাবেই খেলার চেষ্টা করে। বিশেষ করে নিজেদের মাঠে। লিভারপুলের বিপক্ষে তা করেছে, চেলসির বিপক্ষেও। সব সময়ই এসব ম্যাচে শুরু থেকেই ওরা ঝাঁপিয়ে পড়ে, অনেক দৌড়ায়…’

তখন মাত্রই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মাঠে ২-১ গোলে হেরেছে হোসে মরিনহোর টটেনহাম। লন্ডনের ক্লাবটির দায়িত্বে প্রথম তিন ম্যাচেই জেতা মরিনহোর প্রথম হার সেটি, তা-ও ১২ মাস আগে যে ক্লাব থেকে বরখাস্ত হয়েছিলেন, সেই ইউনাইটেডের মাঠে প্রথম ফেরার ম্যাচে। হারের বিশ্লেষণে তাঁর দলের শুরুটা যে ভালো হয়নি, সে অনুযোগ জানাতে গিয়েই কথাগুলো বলছিলেন মরিনহো।

তবে কথাগুলো আজ কাজে লাগতে পারে ম্যানচেস্টার সিটি কোচ পেপ গার্দিওলারও। বাংলাদেশ সময় আজ রাত সাড়ে ১১টায় সিটির মাঠেই ‘ম্যানচেস্টার ডার্বি’ কি না! মৌসুমটা যতই উত্থানপতনে কাটুক ইউনাইটেডের, দলটা যে অন্য বড় দলের বিপক্ষে ম্যাচ হলেই একেবারে অন্য চেহারায় হাজির হয়ে যায়! রেকর্ডই তা বলে। প্রিমিয়ার লিগে এখন পর্যন্ত মৌসুমে ১৫টি ম্যাচ খেলেছে ইউনাইটেড। এই ১৫ ম্যাচের মধ্যে এই মুহূর্তে লিগের পয়েন্ট তালিকায় সেরা দশে থাকা দলগুলোর বিপক্ষে ছিল ৮টি ম্যাচ, তাতে ইউনাইটেড পেয়েছে ১৩ পয়েন্ট। জয় তিনটি, ড্র চারটি, হার বলতে শুধু নিজেদের মাঠে এই মুহূর্তে পয়েন্ট তালিকার সাত নম্বরে থাকা ক্রিস্টাল প্যালেসের কাছে।

মুখোমুখি লড়াইয়ে দুই দলের কী অবস্থা, দেখে নিন।

কিন্তু যখন বিবেচনায় আসবে ২০ দলের পয়েন্ট তালিকার নিচের সারির দশ দলের বিপক্ষে রেকর্ড, ইউনাইটেডের লাল রঙা জার্সি সেখানে হয়ে যায় বড্ড ধূসর। যেন পুঁটি মাছের সঙ্গে পেরে না ওঠা প্রাণীরই পছন্দের শিকার রাঘব বোয়াল! নিচের দিকের ওই দশ দলের বিপক্ষে ৭ ম্যাচে ইউনাইটেডের পয়েন্ট মাত্র ৮! জয় ২টি, ড্র ২টি, হার তিনটি! ওপরের দিকের দশ দলের বিপক্ষে গোল করেছে ১৪টি, খেয়েছে ৯টি। নিচের দিকের দশ দলের বিপক্ষে গোল করেছে-খেয়েছে সমান ৯টি করে।

আজ লিগে ইউনাইটেড যাচ্ছে নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী সিটির মাঠে, তার আগে দলটার এই ‘রাঘববোয়ালে’ লোভ সিটি কোচ গার্দিওলাকে না ভাবিয়ে পারে না! তবে সিটি কোচকে স্বস্তি দেবে ইউনাইটেডের আরেকটা রেকর্ডও। প্রতিপক্ষের মাঠে যে তেমন একটা জেতে না ইউনাইটেড। লিগে উলে গুনার সুলশারের দলের পাঁচ জয়ের চারটিই ঘরের মাঠে, অন্যটি ব্রাইটনের মাঠে। গত ২৭ ফেব্রুয়ারিতে ক্রিস্টাল প্যালেসের মাঠে জেতার পর লিগে প্রতিপক্ষের মাঠে ১১ ম্যাচের মাত্র একটিতে জিতেছে ইউনাইটেড।

ফর্ম:

নিউক্যাসলের মাঠে ড্রয়ের ধাক্কা কাটিয়ে সর্বশেষ ম্যাচে বার্নলির মাঠে ৪-১ গোলে জিতেছে সিটি। সাবেক কোচ হোসে মরিনহোর নতুন ক্লাব টটেনহামকে সর্বশেষ ম্যাচে ২-১ গোলে হারানো ইউনাইটেড সর্বশেষ ৭ ম্যাচের মধ্যে হেরেছে মাত্র একটিতে।

পয়েন্ট তালিকায়:

আগের দুবারের শিরোপাজয়ী সিটি ১৫ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় তৃতীয়। লিগশীর্ষে থাকা লিভারপুলের চেয়ে পিছিয়ে ১১ পয়েন্টে। ইউনাইটেড ২১ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ছয়ে, চারে থাকা চেলসির চেয়ে পিছিয়ে ৮ পয়েন্টে।

সংখ্যায় সংখ্যায়:
২৩

নিজেদের মাঠে ২০১৯ সালে সব টুর্নামেন্ট মিলিয়ে ২৬ ম্যাচের ২৩টিতে জিতেছে সিটি, হার একটি।

সর্বশেষ আট ম্যাচের একটিতেও নিজেদের জাল অক্ষত রাখতে পারেনি সিটি, নিজেদের মাঠে সর্বশেষ ৭ ম্যাচে ‘ক্লিনশিট’ রেখেছে মাত্র একটি।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারিতে ক্রিস্টাল প্যালেসের মাঠে জেতার পর লিগে প্রতিপক্ষের মাঠে ১১ ম্যাচের মাত্র একটিতে জিতেছে ইউনাইটেড।

১২

লিগে প্রতিপক্ষের মাঠে সর্বশেষ ১২ ম্যাচের সবগুলোতেই গোল খেয়েছে ইউনাইটেড।

গত মৌসুমে জিতলেও নিজেদের মাঠ ইতিহাদে ইউনাইটেডের বিপক্ষে সর্বশেষ চার ম্যাচের তিনটিতেই জয়হীন সিটি, হার দুটি।

চোখ রাখুন:
সিটি:

গ্যাব্রিয়েল জেসুস: বার্নলির বিপক্ষে ম্যাচে জোড়া গোল পেয়েছেন, মৌসুমে সব মিলিয়ে তাঁর গোল ৬টি।

ইউনাইটেড:

মার্কাস রাশফোর্ড: টটেনহামের বিপক্ষে দলের দুটি গোলই তাঁর। লিগে সর্বশেষ ৭ ম্যাচে ৬ গোল।

চোটের খবর:
সিটি: সানে, লাপোর্ত ও আগুয়েরো চোট নিয়ে মাঠের বাইরে। সংশয়ে জিনচেঙ্কোর খেলা।
ইউনাইটেড: চোট নিয়ে মাঠের বাইরে বাইয়ি। সংশয়ে পগবা, মাতিচ, রোহোর খেলা।
সর্বশেষ পাঁচ ম্যাচের ফল (শুরুতে সর্বশেষ ম্যাচ):
সিটি: জয়, ড্র, ড্র, জয়, হার
ইউনাইটেড: জয়, ড্র, হার, ড্র, জয়

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে