নেইমারের ছুটির ঘণ্টা বাজাচ্ছে পিএসজি, মিলছে না মুক্তি

0
73
নেইমার

অর্ধেক অঙ্ক খাতায় তুলতেই ছুটির ঘণ্টা। বাকি অঙ্কে মন বসে না। সুযোগ থাকলে আধখান অঙ্ক খাতায় তুলেই ক্লাস থেকে ভো দৌড়। পিএসজির ব্রাজিলিয়াম তারকা  নেইমারের ক্ষেত্রে বিষয়টা উল্টো। ক্লাব তার ছুটির ঘণ্টা বাজাচ্ছে। তিনি বেঞ্চের নিচে নিজেকে লুকাচ্ছেন!

সংবাদ মাধ্যম গোল দাবি করেছে, উপযুক্ত প্রস্তাব পেলে নেইমারকে চলতি গ্রীষ্মকালীন দলবদলের মৌসুমেই বিক্রি করে দেবে পিএসজি। একদিন আগে সংবাদ মাধ্যম মার্কাকে বিশেষ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন দলটির প্রেসিডেন্ট নাসের আল খেলাইফি। সেখানে নেইমারের ভবিষ্যত প্রশ্নে চুপ করে থেকেছেন তিনি।

জানিয়েছেন, এটা সংবাদ মাধ্যমের সামনে বলার মতো বিষয় নয়। অনেককেই ক্লাব ছাড়তে হতে পারে। নতুন প্রজেক্ট নিয়ে ভাবছেন তারা। অন্তঃকক্ষে অনেক কিছু নিয়েই আলোচনা চলছে। তার কথায় ইঙ্গিত ছিল, নেইমারকে নিয়ে খুব বেশি আগ্রহী নন তারা। বিস্ফোরক অনেক মন্তব্যের মাঝেও বলতে পারেননি, ‘নেইমার নট ফর সেল।’

গত মৌসুমে পিএসজির সঙ্গে তিন বছরের চুক্তি নবায়ন করে ক্লাব প্রেসিডেন্ট খেলাইফির সঙ্গে নেইমার। ছবি: ফাইল

ছুটির ঘণ্টা বাজলেও নেইমার পিএসজি থেকে অন্য ক্লাবে যাচ্ছেন না। তেমনি ঘণ্টা বাজিয়েও নেইমারকে বিদায় করার উপায় আপাতত প্যারিসের ক্লাবের হাতে নেই। কারণ ব্রাজিলিয়ান তারকা চার মৌসুম আগে দলবদলের রেকর্ড গড়ে পিএসজি যোগ দেন। তার বেতনও অনেক।

পিএসজি তাকে রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে কিনেছে। ওদিকে বছরে ৪৮ মিলিয়ন ইউরো বেতন দেওয়া হয় তাকে। ইউরোপের কোন এলিট ক্লাব যেমন রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানসিটি, চেলসি কিংবা ম্যানইউ-এর এতো বেতন দিয়ে ২৯ বছর বয়সী নেইমারকে পোষার ক্ষমতা আপাতত নেই। সঙ্গে অন্তত ১২০-১৩০ মিলিয়ন ইউরোর প্রাইস ট্যাগ তো তার পিঠে সাঁটা আছেই।

কাতারে বিশ্বকাপে মনোযোগ নেইমারের। পিএসজি ভিন্ন অন্য কোন ক্লাব যাওয়ার কথা ভাবছেন না তিনি। ছবি: ফাইল

নেইমারের সঙ্গে পিএসজির চুক্তি ২০২৫ সাল পর্যন্ত। গত বছরই চুক্তি নবায়ন করেছেন তিনি। চুক্তি নবায়নের বছরটাই সবচেয়ে খারাপ গেছে তার। তবে নতুন বছরে সম্ভাব্য নতুন কোচের অধীনে ব্রাজিলিয়ান তারকা নিজেকে প্রমাণ করতে প্রস্তুত। এছাড়া চলতি বছরের কাতার বিশ্বকাপে বাড়তি মনোযোগ তার। প্যারিস থেকেই তিনি বিশ্বকাপ চ্যালেঞ্জ নিতে চান।

বিক্রি করতে পারবে না জেনেও নেইমারকে বাজারে তুলেছে পিএসজি। অনেকটা বিলাস বহুল শপিং মলের দামী পণ্যের শো রুমে সাজানো শো পিসের মতো। বাস্তবতা হলো, বাজারে তাকে কেনার মতো দল আছে একটাই। সৌদি মালিকানায় যাওয়া অঢেল পুঁজির নিউক্যাসল ইউনাইটেড। তবে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাকপাই মালিকানাধীন ক্লাবে যাওয়ার কোন ইচ্ছেই নেই নেইমারের। আপাতত তিনি পিএসজি’র বাইরে কিছু ভাবছেনই না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে