নিজেদের ভুলে প্রাণ গেল ১৯ ইরানি নাবিকের

0
84
ক্ষতিগ্রস্থ জাহাজ নোকারেককে ডকে রাখা হয়। ছবি: এএফপি

ইরানের নৌবাহিনীর মিসাইল পরীক্ষার ভুলে প্রাণ গেছে নিজেদের ১৯ নাবিকের । এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৫ জন। রোববার হরমুজ প্রণালীর কাছে ওমান উপসাগরে প্রশিক্ষণ চলাকালে এই দূর্ঘটনা ঘটে।

ইরানের নৌবাহিনীর রণতরী জামারান থেকে নতুন জাহাজ-বিধ্বংসী ওই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করা হচ্ছিল। কিন্তু লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় তা কোনারাক নামের নৌবাহিনীরই একটি লাইটার জাহাজে আঘাত করে। এতে হতাহতের ওই ঘটনা ঘটে।

কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ হরমুজ প্রণালীতে ইরানি নৌবাহীনির নিয়মিত মহড়া চলে থাকে। এ জলপথ দিয়ে বিশ্বের প্রায় এক পঞ্চমাংশ জ্বালানি তেল পরিবহণ করা হয়।

ইরানের নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে সোমবার এক বিবৃতিতে বলা হয়, রোববার সন্ধ্যায় বন্দর-ই জাস্ক ও চাবাহারের জলসীমায় সামরিক প্রশিক্ষণ চলাকালে দুর্ঘটনাটি ঘটে। মূলত জাহাজ কোনারেক একটি প্রশিক্ষণ লক্ষ্যবস্তুকে সেখানে আনে। কিন্তু কোনারেক ওই লক্ষ্যবস্তুর সঙ্গে যথেষ্ট দূরত্ব তৈরি না করায় এমন দুর্ঘটনাটি ঘটে।

ইরানের সামরিক বাহিনীর এমন ভুল এই প্রথম নয়। এইতো জানুয়ারিতে তাদের বিমান বাহিনী অজানা লক্ষ্যবস্তুতে দুটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করতে গিয়ে তা ইউক্রেনের একটি বিমানকে ভূপাতিত করেছিল। যাতে সব আরোহীরা নিহত হন। তবে রোববারের ঘটনাটি একেবারে ভিন্ন পরিস্থিতিতে ঘটল। কারণ এটি ছিল একটি পরিকল্পিত নৌ মহড়া। যা ইরানি নৌবাহিনীরপেশাদারিত্ব সম্পর্কে বিভিন্ন ধরনের প্রশ্নের সৃষ্টি করছে। বিবৃতিতে বলা হয়, ক্ষতিগ্রস্থ জাহাজকে কূলে ডকে রাখা হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে