নারীকে এক কিলোমিটার হিঁচড়ে নিল গাড়িটি

0
145
প্রতীকি ছবি

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় রাস্তা পার হতে গিয়ে ব্যক্তিগত গাড়ির ধাক্কায় এক নারী নিহত হয়েছেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্য, গাড়ির বাম্পারে আটকে যাওয়া ওই নারীকে এক কিলোমিটার পর্যন্ত হিঁচড়ে নেয় গাড়িটি। পরে একই গাড়ি ১৪ কিলোমিটার দূরে রংপুরে এক অজ্ঞাতনামা পথচারীকে চাপা দিয়ে আহত করেছে বলে দাবি করেছে পুলিশ। আজ সোমবার সকালে রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গাড়ি সহ চালককে আটক করা হয়েছে।

নিহত নারীর নাম মোমেনা খাতুন (৪৫)। তিনি সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের অসুরখাই গ্রামের মো. আবু বক্কর সিদ্দীকের স্ত্রী। মোমেনা পেশায় খণ্ডকালীন গৃহকর্মী ছিলেন। অন্যের বাড়িতে কাজ করার জন্য রাস্তা পার হতে গিয়ে তিনি দুর্ঘটনার শিকার হন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের তথ্যমতে, আজ সকাল নয়টার একটু আগে উপজেলার ধলাগাছ মোড় এলাকায় রাস্তা পার হচ্ছিলেন মোমেনা। ওই সময় দিনাজপুরের দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগামী ব্যক্তিগত গাড়ি মোমেনাকে ধাক্কা দিলে তিনি গাড়ির বাম্পারের সঙ্গে আটকে যান। এ অবস্থায় গাড়িটি সেখানে থেকে এক কিলোমিটার দূরে সৈয়দপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল পর্যন্ত মোমেনাকে টেনে নিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। এ সময় টার্মিনালের লোকজন গাড়িটিকে আটকানোর চেষ্টা করলে চালক গাড়িটি নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যান।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাজাহান পাশা।

এদিকে তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানা-পুলিশ জানিয়েছে, একই গাড়ি রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলায় গিয়ে এক পথচারীকে চাপা দেয়। এ সময় লোকজন ধাওয়া করলে চালক একটি গাছের সঙ্গে গাড়িটির ধাক্কা লাগালে আহত হন। আহত পথচারীকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। পথচারীর নাম জানা যায়নি।

তারাগঞ্জের বামনদীঘি এলাকা থেকে তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার সার্জেন্ট নওশাদ গাড়িসহ চালককে আটক করেন। তিনি জানান, আহত চালককে তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গাড়িটি জব্দ করে থানায় নেওয়া হয়েছে। গাড়িটির নম্বর ঢাকা মেট্রো য-০০০০৫৩৭।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে