নরসিংদীতে মাইক্রোবাস-ট্রাকের সংর্ঘষে নিহত ৫, আহত ৭

0
47
ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে দুমড়েমুচড়ে যাওয়া মাইক্রোবাস। এই দুর্ঘটনায় অন্তত পাঁচজন নিহত ও সাতজন আহত হন। মাধবদী, নরসিংদী, ১৯ জুন।

পুলিশ আহত যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছে, ওই মাইক্রোবাসে চালকসহ ১৪ জন ছিলেন। যাত্রীরা পরস্পরের আত্মীয়। তাঁরা সিলেটে মাজার জিয়ারতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ফেরার পথে পাঁচদোনার সাকুরার মোড়ে এ দুর্ঘটনার শিকার হন।

নরসিংদীর পাঁচদোনায় ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত ও সাতজন আহত হয়েছেন। আহত যাত্রীদের মধ্যে কয়েজন নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। নরসিংদী সদর হাসপাতাল, ১৯ জুন দিবাগত রাত।

নরসিংদীর পাঁচদোনায় ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত ও সাতজন আহত হয়েছেন। আহত যাত্রীদের মধ্যে কয়েজন নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। নরসিংদী সদর হাসপাতাল, ১৯ জুন দিবাগত রাত। 

আহত যাত্রীরা হলেন রাজিয়া (৪০), সাইফা (১২), ইসরাত জাহান (৮), সামসুন্নাহার (৬০), শারমিন (৩৫), রশিদ (৪০) ও কাজীমুদ্দীন (৫২)। প্রথমে তাঁদের নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার গুরুতর বিবেচনায় চারজনকে ঢাকায় পাঠানো হয়। তাঁদের মধ্যে পথে মৃত্যু হয় রুবি আক্তারের। আর ঘটনাস্থল থেকেই রোকেয়া বেগমকে ঢাকায় নেওয়ার চেষ্টা করেন তাঁর স্বজনেরা। কিন্তু ঢাকার পথে তাঁরও মৃত্যু হয়েছে বলে প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেন মাধবদী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাহিদুল ইসলাম।

পুলিশ বলছে, শনিবার সকালে মাইক্রোবাসের এই যাত্রীরা আশুলিয়া থেকে সিলেটে মাজার জিয়ারত করতে গিয়েছিলেন। তাঁরা সেখানে হজরত শাহজালাল (রহ.) ও হজরত শাহপরান (রহ.)–এর মাজার জিয়ারত করেন। ফেরার পথে পাঁচদোনার সাকুরার মোড়ে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সঙ্গে মাইক্রোবাসটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মাইক্রোবাসটি দুমড়েমুচড়ে যায়।

নরসিংদী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. আসাদুজ্জামান জানান, শিশু সাদেকুলসহ নয়জনকে হাসপাতালে আনা হয়। তবে হাসপাতালে আনার আগেই সাদেকুলের মৃত্যু হয়। আহত আটজনের মধ্যে চারজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানীতে পাঠানো হয়েছে।

নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ইনামুল হক জানান, এ দুর্ঘটনায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। তবে চালক পালিয়ে গেছেন। তাঁকে আটকের চেষ্টা চলছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে