নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশে ২ মাসের স্থিতাবস্থা

0
146
হাইকোর্ট

সাংবাদিক ও সংবাদপত্রের সঙ্গে সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তা-কর্মচারিদের জন্য নতুন বেতন কাঠামো নির্ধারণে গঠিত নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশের ওপর দুই মাসের স্থিতাবস্থা (স্ট্যাটাসকো) জারি করেছেন হাইকোর্ট।

নবম ওয়েজবোর্ড চূড়ান্ত করতে মন্ত্রিপরিষদ কমিটির সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে নিউজপেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (নোয়াব) করা রিটের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলী সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। ফলে আসন্ন নবম ওয়েজবোর্ডের প্রজ্ঞাপন যে অবস্থায় আছে তেমনই থাকবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

একই সঙ্গে শ্রম আইনের ১২৮ বিধি অনুযায়ী অংশীজনদের (স্টেকহোল্ডার) সুপারিশ ও আপত্তি বিবেচনা না করে একতরফাভাবে নবম ওয়েজবোর্ড চূড়ান্তকরণ এবং গেজেট জারির সুপারিশ করে সরকারের কাছে পাঠানো কেন অবৈধ ও আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না- জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে ওয়েজবোর্ড সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির আহ্বায়ক, তথ্য সচিব, শ্রম ও কর্মসংস্থান সচিব এবং নবম ওয়েজবোর্ড চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. নিজামুল হককে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

সোমবার সংবাদপত্র মালিকদের সংগঠন নিউজপেপার ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (নোয়াব) পক্ষে সংগঠনের সভাপতি ও প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিট করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. ইউসুফ আলী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত তালুকদার ও ইয়াসমিন বেগম বিথী।

পরে আইনজীবী ইউসুফ আলী সাংবাদিকদের বলেন, আদালত নবম ওয়েজবোর্ডের গেজেট প্রকাশের ওপর দুই মাসের স্থিতাবস্থার আদেশ দিয়েছেন। একই সঙ্গে রুলও জারি করেছেন। ফলে এ সময়ে ওই গেজেট প্রকাশ করা যাবে না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে আহ্বায়ক করে চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি মন্ত্রিসভায় নবম ওয়েজবোর্ড রোয়েদাদ বাস্তবায়ন সম্পর্কিত মন্ত্রিসভা কমিটি পুনর্গঠন করা হয়।

গত বছরের ৪ নভেম্বর সাংবাদিকদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ড রোয়েদাদের সুপারিশ তথ্যমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেন নবম ওয়েজবোর্ডের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. নিজামুল হক। এ সুপারিশ মন্ত্রিসভায় উত্থাপিত হয়। গত ২৫ জুলাই ওই কমিটির এক বৈঠকের পর ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, নবম ওয়েজবোর্ডের সুপারিশ চূড়ান্ত করা হয়েছে। ওই সুপারিশ এখন মন্ত্রিসভায় পাঠানো হবে। মন্ত্রিসভার অনুমোদনের পরই তা গেজেট আকারে জারি করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে