তালের পিঠা

0
1068
তালের পিঠা

কথায় আছে, ভাদ্র মাসের তালপাকা গরম। এটাই তো তালের সময়। পাকা তাল ভরা এখন বাজারে। তাল দিয়ে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন চটজলদি নানা পদ। রেসিপি দিয়েছেন জেবুন্নেসা বেগম

কলাপাতায় তালের পিঠা

কলাপাতায় তালের পিঠা
উপকরণ: তালের রস বা মণ্ড ২ কাপ, চালের গুঁড়া ২ কাপ, লবণ সামান্য, বেকিং পাউডার ১ চা-চামচ, চিনি ২ কাপ, কলাপাতা ২টা, তেল/ঘি সামান্য।

প্রণালি: তালের রস, চালের গুঁড়া, চিনি, লবণ, বেকিং পাউডার—সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে কয়েক ঘণ্টা ঢেকে রাখুন। কলাপাতার ছোট ছোট টুকরা করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। কলাপাতার ভেতর অল্প অল্প করে তালের মিশ্রণ দিয়ে পাতা ভাঁজ করে নিন। প্যানে ঘি ব্রাশ করে ভাঁজ করা কলাপাতা দিয়ে ঢেকে দিন। এক পাশ হয়ে গেলে উল্টে দিন। পিঠা হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। পিঠায় কলাপাতা পোড়ার সুন্দর একটি ঘ্রাণ পাওয়া যাবে।

তালের বড়া

তালের বড়া

উপকরণ: তালের মণ্ড বা তালের রস ১ কাপ, ময়দা দেড় কাপ, আতপ চালের গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, চিনি পৌনে এক কাপ, ভাজার জন্য তেল ও বেকিং পাউডার আধা চা-চামচ।

পুরের জন্য: কোরানো নারকেল ১ কাপ, চিনি ১ কাপ, দারুচিনি ১ টুকরা, ঘি আধা চা-চামচ।

প্রণালি: প্রথমে কোরানো নারকেল, চিনি, দারুচিনি ও সামান্য ঘি দিয়ে চুলায় বসান। নাড়তে থাকুন যেন পুড়ে না যায়। ঘন হয়ে জমাট বেঁধে এলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। তালের মণ্ডে চালের গুঁড়া, ময়দা, চিনি, বেকিং পাউডার মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করুন। ভাজা নারকেল দিয়ে ছোট ছোট বল তৈরি করুন। প্রতিটি বল তালের মিশ্রণে গড়িয়ে ডুবো তেলে ভেজে বড়া পিঠা তৈরি করে নিন।

কাঁঠাল পাতায় তালের পিঠা

কাঁঠাল পাতায় তালের পিঠা
উপকরণ: তালের মণ্ড ২ কাপ, কাঁঠাল পাতা ২০-৩০টি, আতপ চালের গুঁড়া সাড়ে তিন কাপ, লবণ সামান্য, চিনি ২ কাপ (স্বাদমতো), কোরানো নারকেল ১ কাপ, টুকরা করা নারকেল আধা কাপ।

প্রণালি: তালের রস বের করে ছেঁকে নিন, যাতে কোনো আঁশ না থাকে। তালের রস বা মণ্ডের সঙ্গে চালের গুঁড়া, চিনি, কোরানো নারকেল, সামান্য লবণ মেখে কয়েক ঘণ্টা ঢেকে রাখুন। কাঁঠাল পাতা পরিষ্কার করে ধুয়ে মুছে নিন, পানি যেন না থাকে। প্রতিটি পাতা পানের খিলির মতো করে টুথপিক দিয়ে আটকে দিন। পাতার খিলির ভেতর পৌনে এক ভাগ অংশে তালের মিশ্রণ দিয়ে ওপরে টুকরা করা নারকেল দিন। ভাপের পাত্রে বসিয়ে ১৫ মিনিট স্টিম করুন। একইভাবে সব পিঠা তৈরি করে নিন।

তালের ক্ষীরশা

তালের ক্ষীরশা
উপকরণ: পাকা মিষ্টি তালের রস ২ কাপ, চিনি ২ কাপ, কোরানো নারকেল ১ কাপ, পোলাও চালের গুঁড়া ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি: পাকা মিষ্টি তালের বিচি থেকে রস বের করে নিন। লক্ষ করবেন, যেন তাল তিতা না হয়। ভালোভাবে ছেঁকে নেবেন যেন আঁশ না থাকে। এবার এর সঙ্গে বাকি সব উপকরণ মিশিয়ে চুলায় জ্বাল দিন। ঘন ঘন নাড়ুন, না হলে পাত্রের নিচে লেগে যাবে। ঘন হয়ে এলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন। তালের ক্ষীরশা রুটি অথবা ভাতের সঙ্গে খেতে পারেন।

ভাপে তালের কেক

ভাপে তালের কেক
উপকরণ: তালের মণ্ড ১ কাপ, আতপ চালের গুঁড়া ২ কাপ, তরল দুধ আধা কাপ, বেকিং পাউডার ১ চা-চামচ, ডিম ১টা, চিনি ২ কাপ, কোরানো নারকেল ১ কাপ, পোলাও চালের গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, ঘি ১ চা-চামচ।

প্রণালি: তালের থেকে রস বের করে ছেঁকে নিতে হবে। কোনো আঁশ থাকবে না। তালের মণ্ড বা রসের সঙ্গে ঘি ছাড়া বাকি সব উপকরণ মেখে ঢেকে রাখুন। কয়েক ঘণ্টা পর মিশ্রণ ফুলে উঠলে বুঝবেন, পিঠা তৈরির জন্য প্রস্তুত মিশ্রণ। পাত্রে ঘি ব্রাশ করে নিন। পাত্রে মিশ্রণ ঢেলে ভাপে দিয়ে দিন। টুথপিক দিয়ে দেখুন যদি টুথপিকে কিছু লেগে না থাকে, তাহলে বুঝবেন পিঠা হয়ে গেছে। ইচ্ছে হলে পাত্রে পানি দিয়ে পাতলা সাদা কাপড় দিয়ে পাত্র আটকে সেই কাপড়ের ওপরও ভাপে পিঠা তৈরি করতে পারেন।

তালের রস বড়া

তালের রস বড়া
উপকরণ: তালের মণ্ড ১ কাপ, পোলাও চালের গুঁড়া ৩ টেবিল চামচ, ময়দা ১ কাপ, তরল দুধ আধা কাপ, বেকিং পাউডার ১ চা-চামচ, চিনি ১ টেবিল চামচ, কোরানো নারকেল ২ টেবিল চামচ ও ভাজার জন্য তেল।

শিরার জন্য: চিনি ১ কাপ, পানি ১ কাপ ও এলাচি ২টা।

প্রণালি: তালের রস ছেঁকে নিন। কোনো আঁশ যেন এতে না থাকে। এবার চালের গুঁড়া, ময়দা, তরল দুধ, অল্প চিনি, কোরানো নারকেল, তালের মণ্ড ও বেকিং পাউডার একসঙ্গে মেশান। তেল গরম করে ডুবো তেলে বড়া পিঠা ভেজে তুলুন। অন্য পাত্রে চিনি, এলাচি ও পানি দিয়ে শিরা তৈরি করুন। ভাজা বড়াগুলো চিনির শিরায় ঢেলে দিন। বড়া পিঠার ভেতর শিরা ঢুকে ফুলে উঠলেই পিঠা সম্পূর্ণভাবে তৈরি হয়ে যাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে