ট্রাম্পের কথায় এশিয়ার শেয়ারবাজার চাঙা

0
399
এশিয়ার শেয়ারবাজারগুলোতে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা গেছে। ছবি: এএফপি

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথায় চাঙা হয়ে উঠেছে এশিয়ার শেয়ারবাজার। প্রত্যাশিত সময়ের আগেই চীনের সঙ্গে একটি বাণিজ্য চুক্তি এবং জাপানের সঙ্গে নতুন চুক্তির বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি। আর এতেই আজ বৃহস্পতিবার ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা গেছে এশিয়ার শেয়ারবাজারগুলোতে।

জাতিসংঘের এক অধিবেশনে ট্রাম্প বলেন, খুব দ্রুতই চীনের সঙ্গে একটি চুক্তি হবে। অভিশংসনের তদন্ত শুরুর বিষয়ে উদ্বেগ থাকা সত্ত্বেও ওয়াল স্ট্রিটকে চাঙা করতে চাইছেন ট্রাম্প।

জাতিসংঘ শীর্ষ সম্মেলনে চীনের ‘আপত্তিকর’ মন্তব্যের বিরুদ্ধে বিদ্রূপ করার ঠিক এক দিন পর নতুন চুক্তির কথা জানালেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তাঁর ওই বিদ্রূপাত্মক মন্তব্যের জেরে মঙ্গলবার পুঁজিবাজারের সূচক নিম্নমুখী হতে থাকে।

গতকাল বুধবার ট্রাম্প বলেন, ওয়াশিংটন এবং টোকিও একটি নতুন বিস্তৃত বাণিজ্য চুক্তির গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিচ্ছে। এর ফলে মার্কিন খামারে রপ্তানির ক্ষেত্রে টোকিওর সাত বিলিয়ন ডলার শুল্ক কমে যাবে।

অ্যাক্সিট্রেডারের এশিয়া প্যাসিফিক বাজারের কৌশলবিদ স্টিফেন ইনেস বলেছেন, বিনিয়োগকারীরা দীর্ঘদিন ধরে ‘বাণিজ্যযুদ্ধে’ এতটাই নাজেহাল হয়ে পড়েছেন যে, যেকোনো আশার আলো পেয়ে তাঁরা উৎফুল্ল হয়ে ওঠেন।

শেয়ারবাজার সূচক ডাউ এবং এসঅ্যান্ডপি ৫০০–এর দেওয়া তথ্যমতে, লেনদেনের পরিমাণ ০.৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যদিকে শেয়ারবাজার সূচক নাসডাক জানিয়েছে, দিন শেষে লেনদেনের পরিমাণ ১.১ শতাংশ বেড়েছে।

বাণিজ্য বিষয়ে ট্রাম্পের ইতিবাচক মন্তব্যে এশিয়ার শেয়ারবাজারগুলো চাঙা হতে শুরু করেছে। টোকিওতে বাণিজ্য সূচক ০.৩ শতাংশ, হংকংয়ে ০.২ শতাংশ এবং সিউলে ০.৪ শতাংশ বেড়েছে। তবে সাংহাইয়ের পুঁজিবাজারে ০.৭ শতাংশ সূচক পতন হয়েছে।

টোকাই টোকিও গবেষণা ইনস্টিটিউটের বাজার বিশ্লেষক মাকোটো সেনগোকু বলেছেন, ‘প্রেসিডেন্টের বক্তব্যে প্রতিদিনই বাজারে প্রভাব পড়ছে। তাঁর সর্বশেষ পদক্ষেপ অনুযায়ী, বাণিজ্য সম্পর্কে ইতিবাচক মন্তব্যের জেরে মানুষ আশাবাদী হয়ে উঠছে।’

বার্তা সংস্থা এএফপিকে মাকোটো সেনগোকু বলেছেন, এই উদ্যোগের ফলে চলমান দ্বন্দ্ব কিছুটা প্রশমিত হয়ে বিশ্ব অর্থনীতি ওজনদার হয়ে উঠবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

মার্কিন ইনভেন্টরির (মজুত) অপ্রত্যাশিত বৃদ্ধি এবং ১৪ সেপ্টেম্বর সৌদি আরবের তেল স্থাপনায় হামলার ক্ষতি দ্রুত পুনরুদ্ধারের পর অপরিশোধিত তেলের দামে কিছুটা পরিবর্তন এসেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক অপরিশোধিত তেলের বাজার ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের (ডব্লিউটিআই) প্রতি ব্যারেল তেলের দাম ০.১ শতাংশ বাড়লেও ইউরোপভিত্তিক তেলের বাজারে ব্রেন্ট ক্রুডের (অপরিশোধিত তেল) দাম অপরিবর্তিত ছিল।

ফরেক্স বাজারে পাউন্ডের দামে সামান্য পরিবর্তন এসেছে। কোনো চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিট হবে না—এ বিশ্বাস নিয়ে মঙ্গলবার ব্রিটিশ মুদ্রার মান ঊর্ধ্বমুখী হয়।

বৈদেশিক মুদ্রা সংস্থা ওয়ানডার জ্যেষ্ঠ বাজার বিশ্লেষক জেফ্রি হ্যালি বলেছেন, ব্রেক্সিট নিয়ে ধোঁয়াশার ব্যাপারে রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গির কথা মাথায় রেখে এবং আপাতদৃষ্টিতে অনিবার্য নির্বাচন সামনে রেখে পাউন্ডের দাম বেড়ে যাওয়া সত্যিকার অর্থেই একটি সুসংবাদ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.