জামাল ভূঁইয়ার দাম ৬৬ লাখ টাকা

0
789
নতুন মৌসুমের জন্য জামাল ভূঁইয়ার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেছে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব। সংগৃহীত ছবি
টানা তৃতীয় মৌসুমের জন্য সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। আজই হয়েছে নতুন চুক্তি।

 

‘ঢাকার ফুটবলে টাকা ওড়ে’, সাম্প্রতিক সময়ে দল বদলের সময় হওয়ার আগেই ফুটবল পাড়ায় ঘুরে বেড়ালে এ কথা মনে হতে বাধ্য। জাতীয় ফুটবল দলের অবস্থা যত খারাপই হোক না কেন, ঘরোয়া ফুটবল মানেই টাকার ঝনঝনানি। প্রতি বছর যেভাবে খেলোয়াড়দের দাম বাড়ছে, তাতে এই কথায় ভুল ধরার লোক আর পাওয়া যাচ্ছে না। প্রতি মৌসুমে জ্যামিতিক হারে বাড়ছে ফুটবলারদের দাম। জাতীয় দলের তরুণ উদীয়মান খেলোয়াড়দের দামই এবার উঠে গিয়েছে ৫০ লাখ টাকা।

 

জামাল-সাইফের চুক্তিটা ফুটবল বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর মতো মাসিক চুক্তিতে। বিশ্বস্ত সূত্রমতে সাইফ থেকে মাসিক সাড়ে ৫ লাখ টাকা পাবেন জামাল (এবারের চলতি মৌসুমেও একই চুক্তি ছিল)। সে হিসেবে এক বছরে ৬৬ লাখ টাকা। এবারের মৌসুমে তাঁর সঙ্গে সাইফের চুক্তি এক বছর হলেও বারবার খেলা পেছানোয় শেষ পর্যন্ত ১৪ মাসে শেষ হতে যাচ্ছে মৌসুম (২০১৮ জুন-২০১৯ আগস্ট)। ফলে ২০১৯ মৌসুমে ১৪ মাসের জন্য ২৯ বছর বয়সী এই হোল্ডিং মিডফিল্ডারের পেছনে সাইফকে খরচ করতে হয়েছে ৭৭ লাখ টাকা।

এবারের মৌসুমে সাইফের বাকি আছে আর এক ম্যাচ। ২৩ ম্যাচে ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চতুর্থ স্থানে আছে তারা। শেষ ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধার বিপক্ষে জিতলেও চতুর্থ স্থানে থেকেই লিগ শেষ করতে হবে তাদের। ২৩ ম্যাচের মধ্যে ১৯ ম্যাচে মাঠে ছিলেন জামাল। হোল্ডিং এই মিডফিল্ডারের পা থেকে গোল এসেছে একটি।

২০১৩ সাল থেকে জাতীয় দলের জার্সিতে খেলছেন ডেনমার্ক প্রবাসী জামাল। ২০১৪ সালে প্রথমবারের মতো শেখ জামাল ক্লাবের হয়ে ঘরোয়া ফুটবলে নাম লেখান তিনি। শেখ জামাল থেকে পরের মৌসুমে শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রে। সেখান থেকে ২০১৭ সালে গায়ে তুলে নেন সাইফের জার্সি। আগামী মৌসুমে টানা তৃতীয় বারের মতো করপোরেট ক্লাবটিতে দেখা যাবে বাংলাদেশ অধিনায়ককে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.