জানলে মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী হিসেবে সম্মান দিতাম: কাদের

0
496
সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রীকে মঞ্চ থেকে নামিয়ে দেওয়ার ঘটনাটি তিনি জানতেন না। ঘটনাটি তিনি জেনেছেন চট্টগ্রাম থেকে চলে আসার সময় বিমানবন্দরে। তিনি যদি বিষয়টি জানতেন, তাহলে মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী হিসেবে অবশ্যই তাঁকে সেই সম্মান দিতেন।

আজ সোমবার সচিবালয়ে সমসাময়িক বিষয়ে আলাপকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অভিযোগ উঠেছে, চট্টগ্রামে গতকাল আওয়ামী লীগের দলীয় এক অনুষ্ঠানে প্রয়াত মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী ও চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিনকে বর্তমান মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন মঞ্চ থেকে নামিয়ে দেন। এ নিয়ে সেখানকার আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি সড়ক ভবনে অন্য একটি অনুষ্ঠানে ছিলেন। সেখান থেকে তিনি যখন ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেন, তখন কেউ তাঁকে এ ধরনের ঘটনার কথা জানায়নি। তিনি যখন বিমানবন্দরে যান, তখন একজন তাঁকে এ ঘটনা জানায়। এরপর তিনি এ বিষয়ে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনকে জিজ্ঞেস করেন। নাছির উদ্দীন জানিয়েছেন, তিন জেলার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকেরা বৈঠক করে ঠিক করেছেন মঞ্চে কে কে বসবেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘তবে আমি যদি জানতাম, তাহলে মহিউদ্দিন চৌধুরীর স্ত্রী হিসেবে তাঁকে সম্মান দিতাম।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে পরীক্ষায় জালিয়াতির ঘটনায় নরসিংদীর সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ নুসরাত তামান্না ওরফে বুবলীর বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, দলের পরবর্তী কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় বিষয়টি আলোচনা করা হবে। তাঁর বিরুদ্ধে দলীয় ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে।

সাংসদ নুসরাত তামান্নার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএ প্রোগ্রামের পরীক্ষার্থী ছিলেন। কিন্তু তাঁর হয়ে অন্যরা পরীক্ষা দিয়েছেন। তিনি এ ঘটনায় ধরা পড়ার পর তাঁর সব পরীক্ষা ও নিবন্ধন বাতিল করেছে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

চলমান শুদ্ধি অভিযান দলের পাশাপাশি অন্যান্য সেক্টরেও হচ্ছে এবং হবে বলে জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, দলে যেমন নজরদারি আছে, তেমনি প্রশাসনেও নজরদারি আছে। যাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তা যদি তদন্তে প্রমাণিত হয়, তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.