ছয় হাজারের ক্লাবে মুশফিক

0
600
মুশফিকুর রহিম।ছবি: বিসিবি

বাংলাদেশ ওপেনার তামিম ইকবাল ছিলেন সাত হাজার রানের মাইলফলকের সামনে। ১২৯ রান করলে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে সাত হাজার রান হতো তার। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে তামিম করতে পেরেছেন ১৯ রান। তবে মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশের তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে ছয় হাজার রান পূর্ণ করেছেন।

বাংলাদেশের এই মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যানের রোববার সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ৮ রান হলেই ছয় হাজার রান পূর্ণ হতো। তামিম ইকবাল ছাড়াও ছয় হাজার রান আছে সাকিব আল হাসানের।

ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশ দলের হয়ে সর্বোচ্চ ছয় হাজার ৮৯০ রান করেছেন তামিম ইকবাল। তিনি বাংলাদেশ দলের হয়ে ২০৩ ম্যাচ খেলেছেন। ব্যাটিং করেছেন ২০১ ইনিংস। সাকিব আল হাসান ছয় হাজার ৩২৩ রান করে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন। তিনি ম্যাচ খেলেছেন ২০৬ টি। ব্যাট করে ১৯৪ ইনিংসে। তালিকায় তৃতীয় মুশফিক। তিনি ছয় হাজার রান করতে নিয়েছেন ২১৫ ম্যাচ। ইনিংস নিয়েছেন ২০১টি।

এছাড়া টেস্টে ক্রিকেটে বাংলাদেশের এই তিন ব্যাটসম্যান চার হাজারী ক্লাবে আছেন। টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৮ টেস্টে চার হাজার ৩২৭ রান করেছেন তামিম ইকবাল। দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন মুশফিক। তিনি চার হাজার ৬ রান করেছেন। তেনে থাকা সাকিব করেছেন তিন হাজার ৮০৭ রান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.