চোট-জর্জর সিটির সুবিধা নেওয়ার অপেক্ষায় লিভারপুল

0
191
হতাশ সিটির খেলোয়াড়েরা। ছবি : এএফপি
চোটের কারণে মূল একাদশের বেশ কিছু খেলোয়াড় নেই। ভগ্নপ্রায় ম্যানচেস্টার সিটি নিয়ে লিভারপুলের জয়রথ থামাতে পারবেন তো কোচ পেপ গার্দিওলা?

আয়মেরিক লাপোর্তে, জন স্টোনস, নিকোলাস ওটামেন্ডি। সিটির মূল সেন্টারব্যাক এই তিনজনই। চোট বা অন্যান্য কারণে সমস্যা হলে কাজ চালানো সেন্টারব্যাকের কাজটা ব্রাজিলের মিডফিল্ডার ফার্নান্দিনহো বেশ ভালোই করতে পারেন। এ ছাড়াও রয়েছেন স্পেনের তরুণ ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়া। গার্দিওলা তাও বুঝেছিলেন, লিগ, কাপ, চ্যাম্পিয়নস লিগের এতগুলো ম্যাচ মিলিয়ে খেলানোর জন্য আরও সেন্টারব্যাকের দরকার পড়তে পারে। যে কারণে দলে চেয়েছিলেন ইংলিশ ডিফেন্ডার হ্যারি ম্যাগুয়ারকে। যে কারণেই হোক ম্যাগুয়াররে পাননি তিনি। লেস্টার সিটি থেকে ম্যাগুয়ার বিশ্বের সবচেয়ে দামি ডিফেন্ডার হয়ে পাড়ি জমিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে।

গার্দিওলার আশঙ্কাই সত্যি হয়েছে। নতুন মৌসুমের তিন মাস যেতে না যেতেই চোটে আক্রান্ত হয়েছেন দলের মূল দুই সেন্টারব্যাক লাপোর্তে আর স্টোনস। সিটির মূল একাদশের দুই সেন্টারব্যাক হিসেবে গার্দিওলার পছন্দ এই দুজনই। ফলে এখন গার্দিওলাকে কাজ চালাতে হচ্ছে ফার্নান্দিনহো ও ওটামেন্ডিকে দিয়ে। মৌসুমের শুরুতেই দলের বহুদিনের পোড় খাওয়া যোদ্ধা ভিনসেন্ট কম্পানিকে ছেড়ে দিয়েছে সিটি।

চোখ দেওয়া যাক রক্ষণভাগের আরও এক জায়গায় – লেফটব্যাক। লেফটব্যাক হিসেবে গার্দিওলার মূল পছন্দ ফরাসি ডিফেন্ডার বেঞ্জামিন মেন্ডি। যখনই খেলেন, দুর্দান্ত খেলেন। কিন্তু একের পর এক চোটের কারণে সে মেন্ডিকেই বা গার্দিওলা পাচ্ছেন কতটুকু? এ পর্যন্ত মৌসুমের অধিকাংশ সময়েই ঘুরেফিরে খেলে গেছেন আলেক্সান্ডার জিনচেঙ্কো, হোয়াও ক্যানসেলোরা।

এবার আসা যাক মিডফিল্ডে। দলের সবচেয়ে প্রতিভাধর ও ফর্মে থাকা মিডফিল্ডার কেভিন ডি ব্রুইনিয়ার অবস্থাও ঘুরেফিরে মেন্ডির মতোই। প্রচণ্ড চোটজর্জর। গত সপ্তাহ পর্যন্ত খেলে চোটের কারণে আবারও চলে গেছেন মাঠের বাইরে। গত মৌসুমে বেশ কিছু ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ গোল করে গার্দিওলাকে উদ্ধার করা জার্মান উইঙ্গার লিরয় সানে সেই মৌসুমের শুরু থেকেই মাঠের বাইরে।

সব মিলিয়ে সিটির অবস্থা তেমন ভালো নয়। আর সেটা প্রতিফলিত হচ্ছে লিগ টেবিলে তাদের অবস্থানে। আট ম্যাচ যেতে না যেতেই ২৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থানে থাকা লিভারপুলের চেয়ে এর মধ্যেই আট পয়েন্ট পিছিয়ে গিয়েছে সিটি। গতকাল উলভারহ্যাম্পটনের কাছে হেরেছে ২-০ গোলে, তাও আবার নিজেদের মাঠে!

ম্যাচের শেষ দশ মিনিটে উলভসের হয়ে দুই গোল করেন সাবেক বার্সেলোনা তারকা উইঙ্গার আদামা ট্রায়োরে। দুটি গোলই ছিল দুর্দান্ত দুই প্রতি আক্রমণের ফসল।

তবে প্রশ্ন হলো, লিভারপুল কি এই অগ্রগামিতা বজায় রাখতে পারবে? গত মৌসুমের একপর্যায়েও সিটির চেয়ে সাত পয়েন্ট এগিয়ে ছিল তারা। সে অগ্রগামিতা ধরে রাখতে পারেনি, শেষমেশ সেই সিটির কাছেই লিগ শিরোপা হারাতে হয়েছিল লিভারপুলকে।

দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরও ৩০ সপ্তাহ!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে