চলে গেলেন একুশে পদক প্রাপ্ত কবি ও গবেষক মংছেনচীং মংছিন

0
383
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কবি কবি মংছেনচীং মংছিনকে একুশে পদক পড়িয়ে দিচ্ছেন।

একুশে পদক প্রাপ্ত মংছেনচীং মংছিন আজ সবাইকে ছেড়ে চলে গেলেন। তিনি একাধারে কবি, সাহিত্যিক, গবেষক, সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক কর্মী, রাস্ট্র ও সমাজ উন্নয়নে প্রগতিশীল মনের মানুষ।

কবি মংছেনচীং মংছিন।

তিনি দীর্ঘ দিন ক্যান্সার ও ফুসফুসের জটিলতার কারণে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন। আজ শনিবার পৃথিবীর সকল মায়া ছেড়ে রাঙ্গামাটির তবলছড়িতে বড় মেয়ের বাড়িতে সকাল ১১টায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

গবেষণা কাজের জন্য তিনি ২০১৬ সালে একুশে পদক লাভ করেন।বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে এ পদক গ্রহন করেন।

কবি মংছেনচীং মংছিন।

দেশের এ কৃতি সন্তানটি কক্সবাজারের রা্খাইন পাড়ায় ১৯৬১ সালের ১৬ জুলাই জন্ম গ্রহন করেন। তাঁর শিক্ষা জীবন শুরু হয় কক্সবাজারেই। তিনি ছাত্র জীবন হতে বিভিন্ন বিষয়ে কৃতিত্ব ও পদক অর্জন করেন। কলেজ জীবনে ইউওটিসি ডিপার্টম্যান্টে যোগদান করেন। উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পর বাইবেল বিষয়ে ডিপ্লোমা পাশ করেন। এরপর নানা পেশা ও সংগঠনের সাথে নিজেকে জড়িত রেখেছেন।

তিনি রাখাইন নৃত্য, চারু ও কারুকলা এবং বাংলা, ইংরেজী, পালি, রাখাইন, মারমা, বার্মিজ, ত্রিপুরা ও চাকমা ভাষায় বিশেষ পারদর্শী ছিলেন। রাখাইন জাতির জীবন ও সংস্কৃতি নিয়ে গবেষণা ও প্রবন্ধ রচনা করেছেন এবং সাংবাদিকতা পেশায় জড়িত থাকার সুবাদে বিভিন্ন সাপ্তাহিক ও ‍দৈনিক পত্রিকায় তাঁর লেখা ছাপিয়েছেন। রাখাইন জাতির পরিচয় মানুষের কাছে তুলে ধরেছেন।

সহধর্মীনি কবি শোভারাণী ত্রিপুরা ও কবি মংছেনচীং মংছিন।

তাঁর বর্ণাঢ্য জীবনে ১৭টি গ্রন্থ প্রকাশ করেছেন।তাঁর সহধর্মীনি শোভারাণী ত্রিপুরাও একজন স্বনাম ধন্য কবি ও প্রাবন্ধিক। তাঁর স্বীকৃতি স্বরূপ ২০১৭ সালে তিনিও বেগম রোকেয়া পদক লাভ করেন। ড. উএনু (প্রিয়াংকা/পুতুল) ও চেনচেননু (তুলি) নামে তাঁর দুই মেয়ে রয়েছেন।

জীবনের একটা সময়ে তিনি মহালছড়িতে এসে বসবাস করছিলেন।দীর্ঘ এ সময়ে নিজ কাজের যোগ্যতায় তিনি মহালছড়ির কৃতি সন্তান হিসেবেও পরিচিতি লাভ করেন।

রবিবার নিজ এলাকায় মহালছড়িতে গুণী এ ব্যক্তিকে সামাজিক ও ধর্মীয় রীতিনীতি মেনে শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে চিরবিদায় দেওয়া হবে। মৃত্যকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। তিনি আত্মীয় স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে চলে গেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে