ঘানা ও তিউনিসিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ খেলবে ব্রাজিল

0
45
বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে প্রীতি ম্যাচ খেলবেন নেইমার–জেসুসরা, ফাইল ছবি: রয়টার্স

কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে পন্ড হওয়া ম্যাচটি সেপ্টেম্বরে পুনরায় খেলার কথা ছিল ব্রাজিলের। কিন্তু দুই দেশের ফুটবল ফেডারেশনই ম্যাচটি খেলতে অনিচ্ছা প্রকাশের পর ফিফা ম্যাচটি বাতিল করে। আগামী শুক্রবার ঘানা ও তিউনিসিয়ার বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচের স্কোয়াড ঘোষণা করবেন ব্রাজিল কোচ তিতে।

ব্রাজিল তিউনিসিয়ার বিপক্ষে সর্বশেষ খেলেছে ১৯৭৩ সালের ৬ জুন। তিউনিসে অনুষ্ঠিত সেই প্রীতি ম্যাচে স্বাগতিকদের ৪–১ গোলে হারিয়েছিল ব্রাজিল। ঘানার বিপক্ষে ২০১১ সালে সর্বশেষ মুখোমুখিতে ১–০ গোলে জিতেছিল দক্ষিণ আমেরিকার দলটি। সেটিও ছিল প্রীতি ম্যাচ।

এর আগে তিতে জানিয়েছিলেন, বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বেশির ভাগ ম্যাচে মাঠে নামার সুযোগ না পাওয়া খেলোয়াড়দের তিনি পরখ করে দেখতে চান। ফ্লামেঙ্গোর ২৫ বছর বয়সী স্ট্রাইকার পেদ্রোর উদাহরণ টেনে কথাটা বলেছিলেন ব্রাজিলের এই কোচ। অর্থাৎ এ দুটি প্রীতি ম্যাচে দলে অনিয়মিত খেলোয়াড়দের পরখ করে দেখতে পারেন তিতে। বিশ্বকাপে ব্রাজিলের ২৬ জনের স্কোয়াডে জায়গা করে নেওয়ার এটাই সুযোগ দলে অনিয়মিত খেলোয়াড়দের।

ম্যাচ দুটো ইউরোপে হওয়ার কথা থাকলেও এখনো ভেন্যুর নাম ঘোষণা করা হয়নি। ২৩ সেপ্টেম্বরের প্রীতি ম্যাচে ঘানার মুখোমুখি হবে ব্রাজিল। এর তিন দিন পর তিউনিসিয়ার মুখোমুখি হবে তিতের দল। গত মাসে তিতে সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে বলেছিলেন, ব্রাজিলের তরুণ ও উঠতি তারকাদের নিয়ে তিনি রোমাঞ্চিত। গত মৌসুমে ভালো করা তরুণদের তিনি সুযোগ দিতে চান কাতার বিশ্বকাপে। নেইমারের ওপর চাপ কমাতে তরুণদের তুলে আনতে চান তিতে।

কাতার বিশ্বকাপে ‘জি’ গ্রুপে ব্রাজিলের প্রতিপক্ষ সার্বিয়া, সুইজারল্যান্ড ও ক্যামেরুন। লুসাইলে ২৪ নভেম্বর সার্বিয়ার মুখোমুখি হয়ে কাতার বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। ‘এইচ’ গ্রুপে ঘানার প্রতিপক্ষ দক্ষিণ কোরিয়া, পর্তুগাল ও উরুগুয়ে। শেষ ষোলোয় ঘানা উঠতে পারলে এবং ব্রাজিলও যদি শেষ ষোলোয় ওঠে তাহলে মুখোমুখি হতে পারে দুই দল। ‘ডি’ গ্রুপে তিউনিসিয়ার প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, ডেনমার্ক এবং বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। ২০ নভেম্বর থেকে শুরু হবে কাতার বিশ্বকাপ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.