গান শোনার যত উপকারিতা

0
341
গান শোনা

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, গান শুধু মনোরঞ্জন করে না, শরীর ও মনের স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্যও এটি উপকারী। গান শুনলে একাধিক উপকারিতা পাওয়া যায়। যেমন-

১. একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, সঙ্গীত মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে সাহায্য করে। বিশেষ করে বয়স্ক মানুষের মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে সঙ্গীত কার্যকরী প্রভাব রাখে। গবেষকরা বলছেন, গান শোনা এমনই একটি কাজ যার মাধ্যমে সম্পূর্ণ মস্তিষ্ক একসঙ্গে সজাগ হয়ে ওঠে। সেই সঙ্গে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতাও বাড়ে।

২. গবেষণা বলছে, মানসিক অবসাদ কমাতে বা কাটাতে গান শোনার জুড়ি নেই। শরীরের ক্লান্তি কাটাতেও গান শোনা দারুণ কাজ করে।

৩. ব্যায়াম বা শরীরচর্চার সময় গান বা ‘ইনস্ট্রুমেন্টাল মিউজিক’ শুনলে সহজে ক্লান্তি আসে না। ফলে দীর্ঘক্ষণ শরীরচর্চা চালিয়ে যাওয়া যায়।

৪. গবেষণায় দেখা গেছে, খামারে গান বা যন্ত্রসঙ্গীত চালিয়ে রাখলে গাছের বৃদ্ধি তুলনামূলক ভাবে দ্রুত হয়।

৫. একাধিক গবেষণায় এটা প্রমাণিত হয়েছে, সঙ্গীত মনসংযোগ বৃদ্ধিতে ও বুদ্ধিমত্তার বিকাশে সাহায্য করে। মার্কিন গবেষকদের দাবি, অংক করার সময় গান শুনলে সাফল্যের হার বৃদ্ধি পায়।

৬. যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া টেক ইউনিভার্সিটির এক গবেষণায় দেখা গেছে, খাওয়ার সময় হালকা ধরনের মিউজিক শুনলে খাবারটা বেশি তৃপ্তি সহকারে খাওয়া হয। সেই সঙ্গে শরীরে ক্যালোরিও কম জমা হয়।

৭. নেদারল্যাণ্ডস এর গবেষকরা বলছেন, গাড়ি চালানোর সময় গান শুনলে মন শান্ত থাকে। এতে ড্রাইভিং করতেও ইতিবাচক মনোভাব কাজ করে। সূত্র : জি নিউজ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে