খেলতে না চায়লে শাস্তি: লা লিগা সভাপতি

0
205
লা লিগা কতৃপক্ষ

জুনে ফুটবল ফেরানোর কথা ভাবছে লা লিগা কতৃপক্ষ। আগামী মের প্রথম সপ্তাহ নাগাদ অনুশীলন শুরুর ঘোষণা দিতে চায় তারা। অনুশীলনের আগে লা লিগার সকল ফুটবলার এবং কোচিং স্টাফের করোনা পরীক্ষা করোনা হবে। এরপর লিগ শুরুর ঘোষণা আসার পরে যদি কোন ক্লাব খেলতে রাজী না হয় তবে তাদের শাস্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন লা লিগার সভাপতি জাভিয়ের তেবাজ।

লা লিগা কতৃপক্ষের সঙ্গে স্প্যানিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (এএফই) লিগ শুরুর ব্যাপারে আলাপ হচ্ছে। কিন্তু এএফই ফুটবলারদের সুরক্ষা নিয়ে চিন্তিত। এমন পরিস্থিতিতে এক ভিডিও কনফারেন্সে তেবাজ বলেন, ‘যদি লিগ শুরুর পর কোন ক্লাব খেলতে অস্বীকৃতি জানায়, তবে আগের নিয়মে তারা ম্যাচের পয়েন্ট হারাবে।’

ওই ভিডিও আলাপে মৌসুম শেষ করা নিয়ে তারা কি ভাবছেন তারও একটা ধারণা দেন লা লিগার এই প্রেসিডেন্ট, ‘প্রথম ধাপ হলো, জরুরী অবস্থা উঠে গেলে আমরা লিগ শেষ করার জন্য বাকি ম্যাচগুলোর একটা পঞ্জিকা তৈরি করে ফেলবো। উয়েফা এবং ইউরোপের অন্য লিগুলোর সঙ্গে আলাপ করে এটা করতে হবে আমাদের। সূচি তৈরি করার পরে আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে ম্যাচ আফাঁক গ্যালারিতে আয়োজন করবো নাকি দর্শক ঢুকতে দেবো।’

লিগ আবার শুরু করতে না পারলে ক্লাবগুলো বড় ক্ষতির মুখে পড়বে। দর্শক শূন্য মাঠে ফুটবল গড়ালেও ক্ষতি বেশ কমবে। তেবাজ বলেন, ‘আমরা হিসেব করে দেখেছি, যদি লিগ শুরু করতে না পারি আমাদের এক বিলিয়ন ইউরো লোকশান হবে। দর্শক শূন্য মাঠে ম্যাচ হলে ক্ষতির পরিমাণ কমে দাঁড়াবে তিনশ’ মিলিয়নে।’

তিনি জানান, লিগ শুরু করতে সব ক্লাবকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। যদি কোন ক্লাব স্বাস্থ্য বিধি না মানেে এবং কেউ আক্রান্ত হয়। তাহলে তার প্রভাব সব দলের ওপর পড়বে। তার মতে, জুনে ফুটবল শুরু করা গেলে অন্তত ১ জুলাই পর্যন্ত নির্বিঘ্নে লিগ চালিয়ে যাওয়া সম্ভব। এরপর চ্যাম্পিয়নস লিগ, ইউরোপের মতো আসরের খেলা শুরু হতে পারে। তবে প্রয়োজন পড়লে জুলাইয়েও লিগ বর্ধিত করা সম্ভব বলে মনে করেন তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.