ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, প্রয়োগ করতে হবে: কর্মকর্তাদের সিইসি

0
739
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। ফাইল ছবি

ভবিষ্যতে সব ধরনের নির্বাচনের দায়িত্ব নেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তাদের প্রস্তুতি নিতে বললেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। তিনি বলেছেন, কর্মকর্তাদের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, তা প্রয়োগ করতে হবে।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে বাংলাদেশ ইলেকশন কমিশন অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের তৃতীয় বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) সিইসি এসব কথা বলেন।

কর্মকর্তাদের উদ্দেশে সিইসি বলেন, ‘একসময় উপজেলা নির্বাচন অফিস ছিল না। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের সম্বল ছিল একটি ব্যাগ, আর যাতায়াতের বাহন ছিল রিকশা। এখন সে অবস্থা নেই। আপনাদের সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। ক্ষমতাও দেওয়া হয়েছে। ক্ষমতা প্রয়োগ করতে হবে। আমরা যদি নিজেরা শক্তিশালী না হই, তাহলে কী হবে?’

কে এম নূরুল হুদা বলেন, ‘আমরা এখন স্থানীয় সরকারের কোনো নির্বাচনে বাইরের কাউকে দায়িত্ব দিই না। ভবিষ্যতে সব ধরনের নির্বাচনের দায়িত্ব নেওয়ার জন্য আপনাদের যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। সেটা কত দিনে হবে জানি না। আপনারা ধীরে ধীরে নিজেদের যোগ্য করে তুলুন।’

স্মার্টকার্ড নিয়ে ফ্রান্সের কোম্পানির সমালোচনা করে সিইসি বলেন, ‘২০১৭ সাল থেকে তারা আমাদের যন্ত্রণা দিয়েছে। তারা সকালে এক কথা, বিকেলে আরেক কথা বলেছে। তারা আমাদের ডেটাবেইস ব্যবহার করতে চেয়েছে। কিন্তু আমরা তা দিইনি। কোম্পানিটি ভেবেছিল, তারা না থাকলে হয়তো আমরা স্মার্টকার্ড আর নাগরিকদের দিতে পারব না। কিন্তু গর্বের বিষয় হলো, এটি এখন আমাদের দেশের ছেলেরা তৈরি করছে।’

রোহিঙ্গাদের ভোটার হওয়ার বিষয়ে কে এম নূরুল হুদা বলেন, দু-একজনের কর্মকাণ্ডের জন্য অনেক সময় কমিশনকে সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়। বিষয়টি লক্ষ রাখতে হবে। সবাইকে সচেতন হয়ে কাজ করতে হবে। সবাই ভালো কাজ করলে সেটারও প্রশংসা হয়।

এ সময় নির্বাচন কমিশনার মো. রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম, শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, ইসির সিনিয়র সচিব মো. আলমগীরসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.