কুড়িগ্রামে ত্রাণের দাবিতে সড়ক অবরোধ, ইউএনও’র গাড়ি ভাংচুর

0
69
কুড়িগ্রামে ত্রাণের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করেছেন এলাকাবাসী।

কুড়িগ্রামে ত্রাণের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করেছেন এলাকাবাসী। শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সদর উপজেলার কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের বাজার এলাকায় কুড়িগ্রাম-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন প্রামানিকটারী, শিবরাম, ভানুরভিটা ও খামারসহ বিভিন্ন গ্রামের তিন শতাধিক মানুষ।

অবরোধকারীদের অভিযোগ, ইউনিয়ন পরিষদ থেকে তাদের আইডি কার্ডের ফটোকপি নেওয়া হলেও এখন পর্যন্ত ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হয়নি। কর্মহীন থাকায় কষ্টে পড়ে তারা রাস্তায় নেমেছেন।

এ অবস্থায় দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ময়নুল ইসলাম, থানার ওসি মো. মাহফুজার রহমান ও কাঁঠালবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রেদওয়ানুল হক দুলাল ঘটনাস্থলে যান। এ সময় ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের সঙ্গে ত্রাণ পাওয়া না পাওয়া নিয়ে তর্কাতর্কি শুরু হয়। এরই এক পর্যায় ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার গাড়ির পেছনের গ্লাস ভাংচুর করার ঘটনা ঘটলে তারা সেখান থেকে চলে আসেন।

এরপর উপজেলা চেয়ারম্যান আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু ও থানার ওসি মো. মাহফুজার রহমান অবরোধকারীদের শান্ত করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। এ সময় যারা পাননি তাদের ত্রাণ দেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিলে অবরোধকারী বাড়ি ফিরে যান।

এদিকে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেদওয়ানুল হক দুলাল জানান, তার ইউনিয়নে কর্মহীন হওয়ার কারণে কষ্টে পড়েছেন এমন ৭ হাজার মানুষের তালিকা করা হয়েছে। এরমধ্যে ১ হাজার ৭৬১ জনকে সরকারি ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হয়েছে। সরকারের মানবিক সহায়তার জন্য ১ হাজার ৩৪২ জনের তালিকা করা হয়েছে। এছাড়া এখানে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজি দরে চাল পাচ্ছেন ২ হাজার ৪৪১ জন। ভিজিডি কার্ডের আওতায় বিনামূল্যে ৩০ কেজি করে চাল পাচ্ছেন ৩০১ জন। সেইসাথে বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতা পাচ্ছেন ১ হাজার ৩৮৭ জন। তারপরও কারও যদি ত্রাণ প্রয়োজন হয় তা চাইলে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানালেও অবরোধকারীরা তা মানেননি।

তিনি অভিযোগ করেন, মহিলা সদস্য মর্জিনা বেগম ও তার ছেলে এলাকার লোকজন দিয়ে এ অবরোধ করিয়েছেন।

ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ময়নুল ইসলাম জানান, কেউ ত্রাণ না পেয়ে থাকলে তাকে দেওয়া হবে- এমন কথা বলা হলেও তারা তা না শুনে চড়াও হওয়ার চেষ্টা করে। এরই এক পর্যায়ে গাড়ির পেছনের গ্লাস ভেঙ্গে দেয় তারা। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে