কুষ্টিয়ায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ৩৫০ জন

0
530
ডেঙ্গু মশা

কুষ্টিয়ায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। জেলায় প্রতিদিন গড়ে ১২ থেকে ১৫ জন আক্রান্ত রোগী হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। গত ৩৮ দিনে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল থেকে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৩৫০ জন রোগী চিকিৎসা নিয়েছে।

কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন রওশন আরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ২৫০ শয্যার কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে শিশুসহ আরও ১৩ জন নতুন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী ভর্তি হয়েছেন। বুধবার বিকেল থেকে বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত এই ১৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে এই হাসপাতালে শিশুসহ মোট ৫৭ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, গত ৭ জুলাই এ বছরের প্রথম ডেঙ্গু রোগী হিসেবে শনাক্ত হন ইসমাইল হোসেন নামের এক ব্যক্তি। তিনি কুষ্টিয়াতে থেকেই আক্রান্ত হয়েছিলেন। চিকিৎসা শেষে পরে বাড়ি চলে যান। আজ ১৫ আগস্ট পর্যন্ত কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল থেকে মোট ৩৫০ জন ডেঙ্গু রোগীকে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে ২৯৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) তাপস কুমার সরকার বলেন, প্রথম দিকে রোগীর সংখ্যা কম থাকলেও গত তিন সপ্তাহে রোগীর চাপ বেড়েছে। এই তিন সপ্তাহে গড়ে প্রতিদিন প্রায় ১৫ জন করে ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে। বেশির ভাগ রোগী ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়ে এখানে এসেছে।

একই হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ মেডিসিন বিশেষজ্ঞ এ এস এম মুসা কবির বলেন, হাসপাতালের দুটি ডেঙ্গু ওয়ার্ডে রোগীদের সেবা দেওয়া হচ্ছে। এই পরিস্থিতি মোকাবিলায় ঈদে চিকিৎসক ও নার্সদের ছুটি বাতিল করা হয়েছিল। পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সার্বক্ষণিক চালু রাখা হয়েছে ল্যাব। আক্রান্ত ব্যক্তিরা সবাই আশঙ্কামুক্ত।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.