কলকাতায় দুই বাংলাদেশিকে গাড়িচাপা, গ্রেপ্তার ১

0
279
আরসালান পারভেজ। ছবিটি ফেসবুক থেকে নেওয়া।

পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় গতকাল শুক্রবার রাতে জাগুয়ারের চাপায় দুই বাংলাদেশি নিহত হন। এ ঘটনায় ওই গাড়ির চালককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার ব্যক্তির নাম আরসালান পারভেজ। তিনি কলকাতার একটি নামী রেস্তোরাঁ চেইনের মালিকের ছেলে।

স্থানীয় পুলিশের বরাতে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গ্রেপ্তার আরসালান পারভেজকে শনিবার আলিপুর আদালতে তোলার কথা। এই গাড়ি দুর্ঘটনায় পুলিশ জাগুয়ারের চালকের বিরুদ্ধে অজামিনযোগ্য ধারায় মামলা দায়ের করেছে।

পুলিশ বলছে, আদালতে আরসালানকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানানো হবে। শুক্রবারের রাতের ঘটনার বিষয়ে আরও বিস্তারিত তথ্যপ্রমাণ জানার জন্যই এই হেফাজত প্রয়োজন।

স্থানীয় সূত্রের বরাতে আনন্দবাজার বলছে, আরসালান পারভেজরা দুই ভাই। দুজনেই বিদেশে পড়াশোনা করতে গিয়েছিলেন। ২০১৪-২০১৮ সাল পর্যন্ত পারভেজ এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজনেস ম্যানেজমেন্টে পড়াশোনা করেছেন। কলকাতার পার্ক সার্কাস মোড়ের ‘আরসালান’ নামের রেস্তোরাঁর একটি শাখার মালিকানাও আরসালান পারভেজের নামে রয়েছে। সায়েন্স সিটির সামনে একটি বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্টে থাকতেন তিনি।

তবে এ বিষয়ে আরসালান রেস্তোরাঁর মালিকের পরিবার কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় গতকাল শুক্রবার রাতে জাগুয়ারের চাপায় নিহত দুই বাংলাদেশি হলেন—কাজী মুহম্মদ মইনুল আলম (৩৬) ও ফারহানা ইসলাম তানিয়া (৩০)। তাঁরা চিকিৎসার জন্য এখানে এসেছিলেন বলে জানা গেছে। মইনুল আলমের বাড়ি ঝিনাইদহে আর ফারহানার বাড়ি ঢাকার মোহাম্মদপুরে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা জানান, জাগুয়ার গাড়িটি কলকাতার বিড়লা প্লানেটরিয়ামের দিক থেকে শেক্‌সপিয়ার সরণি ধরে কলামন্দিরের দিকে যাচ্ছিল। লাউডন স্ট্রিটের ক্রসিংয়ের মুখে জাগুয়ারটি সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা মার্সিডিজ গাড়িকে সজোরে ধাক্কা মারে। চলে যাওয়ার সময় রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা দুই বাংলাদেশিকে চাপা দেয় জাগুয়ারটি। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই দুই বাংলাদেশিকে নিয়ে যাওয়া হয় নিকটবর্তী পিজি হাসপাতালে। পরে চিকিৎসকেরা তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় মার্সিডিজের চালক ও আরোহী আহত হন। তবে জাগুয়ারের চালক গাড়ি ফেলে পালিয়ে যান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে