কর কার্ড পেল ট্রান্সকমের তিন প্রতিষ্ঠান

0
235
সংবাদপত্র ও সাংবাদিক শ্রেণিতে সেরা করদাতা পুরস্কার দিয়েছে এনবিআর। অনুষ্ঠানে ক্রেস্ট হাতে (বাঁ থেকে) ট্রান্সক্রাফটের পক্ষে কামরুল হাসান, মিডিয়াস্টারের পক্ষে মতিউর রহমান, মিডিয়া ওয়ার্ল্ডের পক্ষে রোকিয়া আফজাল রহমান, চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজাদীর সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুল মালেক ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মনজুরুল আহসান বুলবুল। গতকাল রাজধানীর র‌্যাডিসন হোটেলে।

এবারও ট্রান্সকম গ্রুপের তিনটি প্রতিষ্ঠান কর কার্ড পেল। প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া শ্রেণিতে যে চারটি প্রতিষ্ঠানকে কর কার্ড দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে তিনটিই ট্রান্সকম গ্রুপের। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো মিডিয়াস্টার লিমিটেড, ট্রান্সক্রাফট লিমিটেড ও মিডিয়া ওয়ার্ল্ড লিমিটেড।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর র‌্যাডিসন হোটেলে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এসব প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ নির্বাহীদের হাতে কর কার্ড ও সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) পক্ষ থেকে প্রতিবারের মতো জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন শ্রেণিতে সেরা ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পর্যায়ের সেরা করদাতাদের সম্মাননা হিসেবে কর কার্ড দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া শ্রেণিতে সর্বোচ্চ করদাতা প্রতিষ্ঠান হয়েছে মিডিয়াস্টার লিমিটেড। মিডিয়া ওয়ার্ল্ডের পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারপারসন ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রোকিয়া আফজাল রহমান, মিডিয়াস্টারের পক্ষে প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান এবং ট্রান্সক্রাফটের পক্ষে ট্রান্সকমের নির্বাহী পরিচালক (অর্থ) কামরুল হাসান কর কার্ড ও ক্রেস্ট গ্রহণ করেন।

গতবারও প্রতিষ্ঠান তিনটি এই সম্মাননা পেয়েছিল। মিডিয়াস্টার থেকে প্রথম আলো এবং মিডিয়া ওয়ার্ল্ড থেকে ডেইলি স্টার প্রকাশিত হয়। এই দুটি দৈনিক ছাপা হয় ট্রান্সক্রাফট থেকে। সম্মাননা পাওয়া চারটি প্রতিষ্ঠানের অন্যটি হলো ইস্টওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেড। এই প্রতিষ্ঠান থেকে বাংলাদেশ প্রতিদিনকালের কণ্ঠ ও ডেইলি সান প্রকাশিত হয়।

এর পাশাপাশি ট্রান্সকম গ্রুপের পরিচালক শাহনাজ রহমান এ বছর ঢাকা সিটি করপোরেশন এলাকা থেকে সর্বোচ্চ নারী করদাতা হয়েছেন। তাঁর পক্ষে সম্মাননা ক্রেস্ট গ্রহণ করেন ট্রান্সকমের নির্বাহী পরিচালক (অর্থ) কামরুল হাসান।

২০১৭ সালে এনবিআরের পক্ষ থেকে দীর্ঘ সময় ধরে কর দিচ্ছে এমন ৮৪টি পরিবারকে ‘কর বাহাদুর’ পরিবার সম্মাননা দেওয়া হয়। তখন ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমান ও তাঁর পরিবার এই কর বাহাদুর পরিবার সম্মাননা পায়।

প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান ও ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহ্ফুজ আনাম সাংবাদিক শ্রেণিতে এবারও সেরা করদাতা হিসেবে কর কার্ড পেয়েছেন। এ নিয়ে চতুর্থবারের মতো তাঁরা এ সম্মাননা পেলেন। তাঁরাসহ এই তালিকায় আছেন পাঁচ বিশিষ্ট সাংবাদিক। তাঁদের মধ্যে শীর্ষ করদাতা হলেন মাহ্ফুজ আনাম। এর পর আছেন চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজাদীর সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুল মালেক, প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, চ্যানেল আইয়ের পরিচালক (বার্তা) শাইখ সিরাজ ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মনজুরুল আহসান বুলবুল।

এবার সব মিলিয়ে বিভিন্ন পেশাজীবী শ্রেণিতে ৭৬ জন করদাতাকে কর কার্ড দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি ৬৭টি প্রতিষ্ঠানও এই সম্মাননা পেয়েছে। গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরের আয়কর বিবরণী জমার ওপর ভিত্তি করে মূল্যায়ন করেছে এনবিআর।

কর কার্ড পাওয়া ব্যক্তি করদাতারা বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় সুবিধা পাবেন। যেমন বিমানবন্দরে সিআইপি লাউঞ্জ ব্যবহার; তারকা হোটেলসহ সব আবাসিক হোটেলে বুকিংয়ে অগ্রাধিকার; কর কার্ডধারী নিজে ও তাঁর স্ত্রী বা স্বামী, নির্ভরশীল সন্তানের চিকিৎসার জন্য সরকারি হাসপাতালে কেবিন সুবিধা প্রাপ্তিতে অগ্রাধিকার; আকাশ, রেল ও নৌপথে সরকারি যানবাহনে টিকিট প্রাপ্তিতে অগ্রাধিকার; বিভিন্ন জাতীয় অনুষ্ঠান এবং সিটি করপোরেশন ও পৌরসভাসহ স্থানীয় সরকার কর্তৃক আয়োজিত সংবর্ধনায় আমন্ত্রণ। এই কর কার্ডের মেয়াদ হবে এক বছর।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে