করোনা শনাক্তের সেন্সর চায় মার্কিন সেনাবাহিনী

0
134
করোনাভাইরাসের লক্ষণ শনাক্তকরণে যত দ্রুত সম্ভব সেন্সরযুক্ত পরিধানযোগ্য ডিভাইসটি হাতে পেতে চায় মার্কিন সেনাবাহিনী।

করোনাভাইরাসের লক্ষণ শনাক্তকরণ যন্ত্র তৈরি করতে প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোর প্রতি জোর আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী। যত দ্রুত সম্ভব সেন্সরযুক্ত পরিধানযোগ্য ডিভাইসটি হাতে পেতে চায় সেনাবাহিনী। যাতে করে বাহিনীর কোনো সদস্য করোনা আক্রান্ত হলে তাকে তাড়াতাড়ি আলাদা করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা যায়।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী প্রযুক্তি কোম্পানিগুলোকে আড়াই কোটি ডলারের একটি প্রস্তাব গ্রহণ করতে আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

একটি মেডিকেল কনসোর্টিয়ামের মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে প্রাথমিক আবেদন পত্র প্রচার করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, পরিধানযোগ্য করোনা শনাক্তকরণ যন্ত্র তৈরি করা খুবই জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছে এ মুহূর্তে। যত দ্রুত সেটি করা যায় ততই ভালো।

সেন্সরযুক্ত পরিধানযোগ্য ওই যন্ত্রটি হতে পারে হাত ঘড়ির মতো। অথবা সেটি শার্ট বা বেল্টে লাগিয়ে রাখা যায় এমন কিছু। এই যন্ত্রটি সবসময় নির্দিষ্ট ব্যক্তির শরীরের তাপমাত্রা, শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা, এমনকি অ্যান্টিবডি সম্পর্কেও তথ্য দেবে।

এই তথ্য অনুযায়ী বাহিনীর কোনো সদস্যের শরীরে সামান্যতম উপসর্গ পাওয়া গেলেও তাকে আলাদা করে ফেলা সম্ভব হবে।

টিকা আবিষ্কার হওয়ার আগ পর্যন্ত নানা উপায়ে করোনা সংক্রমণ রোধের উপায় খুঁজছে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী। একইরকম চেষ্টা চলছে বেসামরিক সমাজেও। তবে সামরিক বাহিনীতে করোনা সংক্রমণ রোধে যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহৃত কিছু প্রযুক্তির প্রয়োগ শুরু হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ার ফোর্ট বেনিং সেনা ঘাঁটিতে যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহৃত বিশেষ এক ধরনের চশমার মাধ্যমে সেনাদের শরীরের তাপমাত্রা মাপা হচ্ছে। ২৫ মিনিটে অন্তত ৩০০ সেনা সদস্যের তাপমাত্রা মাপা সম্ভব ওই বিশেষ চশমা দিয়ে। এতে করে প্রাথমিক স্ক্রিনিংয়ের কাজ হয়।

এই পদ্ধতিটি গণপরিবহন, বিমানবন্দর বা আবাসিক ভবনেও কাজে লাগানো যেতে পারে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

বিভিন্ন সময় যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীর বেশ কয়েকজন সদস্যের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর মিলেছে। এরপর থেকেই সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে নানা প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতে তৎপরতা শুরু হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে