করোনার সময়ে দেশে জন্ম নেবে ২৪ লাখ শিশু

ইউনিসেফের তথ্য

0
143
করোনাকালে ৪০ সপ্তাহের মধ্যে বাংলাদেশে আনুমানিক ২৪ লাখ শিশু জন্ম নেবে।

জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ বলেছে, বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসকে মহামারি ঘোষণা করার পর থেকে ৪০ সপ্তাহের মধ্যে বাংলাদেশে আনুমানিক ২৪ লাখ শিশু জন্ম নেবে। সংস্থাটি সতর্ক করে আরও বলেছে, বর্তমানে স্বাস্থ্য বিভাগ ভাইরাসে আক্রান্তদের সেবাকে প্রাধান্য দিচ্ছে এবং তা সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে। এতে প্রসূতি ও নবজাতকদের স্বাস্থ্যসেবা যথাযথ গুরুত্ব না পাওয়ার ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। ইউনিসেফের ওয়েবসাইটে এ তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।

সংস্থাটির তথ্যানুযায়ী, ১১ মার্চ করোনাকে মহামারি ঘোষণার পর থেকে প্রায় ১০ মাসে বাংলাদেশসহ বিশ্বজুড়ে আনুমানিক ১১ কোটি ৬০ লাখ শিশুর জন্ম হবে। আর কভিড-১৯ রোগীদের সেবায় নিয়োজিত থাকায় শিশুর জন্মের সময় দক্ষ লোকবলের ঘাটতি থাকবে।

ইউনিসেফ বলছে, সংক্রমিত হওয়ার ভয়ে অন্তঃসত্ত্বারা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে যেতে ভয় পাচ্ছেন। এ ছাড়া লকডাউনের কারণে ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থা চাপের মুখে থাকায় তারা জরুরি সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

১০ মে মা দিবসের আগে সংস্থাটি সতর্ক করে বলেছে, করোনা নিয়ন্ত্রণমূলক পদক্ষেপগুলো শিশুর জন্মকালীন সেবার মতো জীবনরক্ষাকারী স্বাস্থ্যসেবা বিঘ্নিত করতে পারে এবং এটি লাখ লাখ অন্তঃসত্ত্বা মা ও তাদের সন্তানদের বড় ঝুঁকিতে ফেলবে।

ইউনিসেফ বলেছে, বিভিন্ন দেশে অন্তঃসত্ত্বা ও সন্তান জন্মকালীন এবং জন্মের পরের সেবা পাওয়ার সুযোগ নিশ্চিত করতে হবে। মৃত্যুঝুঁকি বেশি থাকায় অসুস্থ নবজাতকের জন্য জরুরি সেবা লাগবে। এ ছাড়া শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানো শুরু করার জন্য সহায়তা এবং সুস্থ রাখতে ওষুধ, টিকা ও পুষ্টি প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে