করোনায় আক্রান্ত পুলিশ কর্মকর্তা ফেসবুকে সাহস জোগালেন

0
99
রংপুর জেলার কমান্ড্যান্ট পুলিশ সুপার (আরআরএফ) মেহেদুল করিম। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পুলিশ কর্মকর্তা তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে আশাবাদের গল্প শুনিয়েছেন।ভিডিওর মাধ্যমে জনগণের উদ্দেশে তিনি বলেছেন, ‘করোনাকে ভয় নয়, জয় করতে হবে। প্রথমে আমার মা একটু কান্নাকাটি করেছেন। কিন্তু এখন আমার মা প্রচণ্ড সাহসী। আমরা সাহসের প্রতীক হতে চাই।’

ওই পুলিশ কর্মকর্তার মা, স্ত্রী, বোন ও ভাগনে এবং বাড়ির কাজের সহকারী ছেলের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তার পরিবারের পাঁচজনের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার তথ্যের সত্যতা আজ শনিবার সকালে নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায়।

ওই পুলিশ কর্মকর্তার নাম মেহেদুল করিম। তিনি রংপুর জেলার কমান্ড্যান্ট পুলিশ সুপার (আরআরএফ)। তাঁর বাড়ি রংপুর নগরের শালবন এলাকায়।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেছেন, ‘করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়ে বাড়ি থেকে আমরা বার্তা দিচ্ছি, ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। আমাদের ফোন দিয়ে অনেকেই কান্নাকাটি করেছেন। কিন্তু কান্নাকাটির কোনো কারণ নেই। শুধু দোয়া চাই। আমরা ভীষণ আশাবাদী। বাড়িতে নিয়মিত ওষুধ খাচ্ছি। সি ভিটামিনযুক্ত ফলমূল খাচ্ছি।’ তিনি আরও বলেছেন, ‘করোনায় আক্রান্তের পরও বাড়িতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।’

পুলিশ কর্মকর্তা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার দু্দই ন পর গতকাল শুক্রবার পরিবারের আরও চার সদস্যের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়।

রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ নুরুন্নবী লাইজু জানান, রংপুর জেলায় আজ শনিবার পর্যন্ত ১২০ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে