এইউডব্লিউয়ের ‘অদ্বিতীয়া’ ১০ ছাত্রীকে সংবর্ধনা

0
270
প্রথম আলো ট্রাস্ট-আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ‘অদ্বিতীয়া প্রকল্প’ থেকে ১০ জনকে দেওয়া হয়েছে মেধা বৃত্তি। এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন, চট্টগ্রাম, ২৯ অক্টোবর।

তাঁরা ১০ জন। তাঁদের কারও ইচ্ছা শিক্ষক হবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের পাট শেষে কেউ ফিরতে চান নিজ এলাকায়। কেউ আবার সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের আলোকিত করতে খুলতে চান ইংরেজি মাধ্যমের স্কুল। কেউ হতে চান সমাজকর্মী। স্বপ্ন আর পরিকল্পনা ভিন্ন ভিন্ন হলেও সমাজের মানুষের জন্য নিজেদের উৎসর্গ করতে চান তাঁরা সবাই।

এই ১০ জন এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেনের (এইউডব্লিউ) ছাত্রী। পারিবারিক আর্থিক অসংগতিকে জয় করা এই ছাত্রীরা এসেছেন দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে। তাঁরা পরিবারের প্রথম মেয়ে সদস্য, যাঁরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পেয়েছেন। প্রথম আলো ট্রাস্ট–আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ‘অদ্বিতীয়া প্রকল্প’ থেকে তাঁদের দেওয়া হয়েছে মেধা বৃত্তি।

পরিবারের এই অদ্বিতীয়াদের আজ মঙ্গলবার বিকেলে চট্টগ্রাম নগরের এম এম আলী সড়কে অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

আইডিএলসি ও প্রথম আলো ট্রাস্ট অদ্বিতীয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান। এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন, চট্টগ্রাম, ২৯ অক্টোবর।

 

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মেধা বৃত্তি পাওয়া ছাত্রী তমা বর্মা বলেন, তাঁর বাবা চা–শ্রমিক। আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। এর মধ্যে প্রথম আলো ট্রাস্ট–আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের বৃত্তির কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। শিক্ষাজীবন শেষে চা–বাগানে ইংরেজি মাধ্যমের স্কুল চালুর পরিকল্পনা আছে।

বৃত্তি পাওয়া আরও তিন ছাত্রী তাসনীম আক্তার, মোহিনী আফরোজ ও শাওন্তী ইসলাম বলেন, প্রথম আলো ট্রাস্ট–আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের বৃত্তির কারণে তাঁরা এখন অনেক আত্মবিশ্বাসী ও স্বনির্ভর। পড়ালেখা শেষে মানুষের জন্য কাজ করার পরিকল্পনা আছে।

অনুষ্ঠানে আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ খান বলেন, এই ছাত্রীদের গল্প অভাবনীয়। এইউডব্লিউতে ভর্তি হওয়ার পর তাঁদের মধ্যে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। তাঁদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

আইডিএলসি ও প্রথম আলো ট্রাস্ট অদ্বিতীয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন আইডিএলসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আরিফ খান। এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন, চট্টগ্রাম, ২৯ অক্টোবর।

প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমান তাঁর বক্তব্যে এইউডব্লিউকে নারীদের জন্য দেশের সেরা বিশ্ববিদ্যালয় বলে অবহিত করেন। তিনি বলেন, ছয়টি দেশের ১৩০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে যে বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হয়েছিল, সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন ১৯ দেশের প্রায় ৯০০ শিক্ষার্থী পড়ছেন। এসব দেশের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংস্কৃতির বিনিময় হচ্ছে। এটা বিশাল অর্জন।

স্বাগত বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ডেভ ডোল্যান্ড এইউডব্লিউয়ের বিভিন্ন কার্যক্রমের কথা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন চিটাগং ইন্ডিপেনডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মাহফুজুল হক চৌধুরী ও নারী উদ্যোক্তা মুনাল মাহবুব।

অদ্বিতীয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন শিক্ষার্থীরা। এশিয়ান ইউনিভার্সিটি ফর উইমেন, চট্টগ্রাম, ২৯ অক্টোবর।

অনুষ্ঠানে এইউডব্লিউ, আইডিএলসি ও প্রথম আলোর তিনটি প্রামাণ্যচিত্র দেখানো হয়। এ ছাড়া সাংস্কৃকিত অনুষ্ঠানে গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলাদেশ, ভারত, ভুটান ও আফগানিস্তানের শিক্ষার্থীরা। শেষে বৃত্তি পাওয়া ১০ শিক্ষার্থীদের হাতে সনদ তুলে দেন অতিথিরা।

প্রথম আলো ট্রাস্ট ২০১২ সাল থেকে এই বৃত্তি দিয়ে আসছে। ট্রান্সকমের সহযোগিতায় ২০১৬ সাল পর্যন্ত ৪২ শিক্ষার্থী এই বৃত্তি পেয়েছিলেন। ২০১৭ সাল থেকে আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের সহায়তায় এখন পর্যন্ত বৃত্তি পেয়েছেন ২৬ জন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে