ঈদ উত্সবে নাটক

0
611
বুক ভরা ভালোবাসা ২ নাটকে তৌসিফ ও শবনম ফারিয়া

ঈদে চ্যানেলগুলোতে নাটক বেশি প্রচারিত হয়। এখন ইউটিউবেও নাটক দেখছেন দর্শকেরা। তাই ঈদ উত্সব ঘিরে দুই মাধ্যমেই প্রায় চার শ নাটক তৈরি হচ্ছে। বছরখানেক ধরে ঈদ উত্সবে বাড়ছে নাটকের সিকুয়ালও।

শিশির বিন্দু পার্ট ২, বুকভরা ভালোবাসা ২, ক্রেজি লাভার ২, ফালতু রিলোডেড, জার্নি বাই রিলেশন ২, ব্যাচেলর ঈদ, পারফেক্ট ওয়াইফ, ভাই প্রচুর কবিতা ভালোবাসে, লেডি কিলার ২, লুজারস ২, কোরবানিসহ অন্তত দুই ডজন সিকুয়াল নাটক ঈদে প্রচারিত হবে।

নাটকের পরিচালক ও অভিনেতারা বলছেন, নানা কারণে নাটকের সিকুয়াল তৈরি বেড়ে গেছে। ঈদের সময়ে টেলিভিশনের জন্য প্রচুর নাটক তৈরি হয়। এখন সরাসরি ইউটিউবের জন্যও তৈরি হচ্ছে। আবার টেলিভিশনে প্রচারের পর ওই নাটকগুলো ইউটিউবে উঠছে। এ সময়ে ইউটিউবে নাটকের দর্শক প্রচুর বেড়ে গেছে। মূলত ইউটিউবে দর্শকের সাড়া বেশি। যেসব নাটকের ভিউ বাড়ছে, দর্শকের মুখে মুখে আলোচনা চলছে, ওই নাটকগুলোর পরিচালক, প্রযোজক ও চ্যানেলের কর্মকর্তারা সিকুয়াল তৈরিতে উত্সাহিত হচ্ছেন।

এবারের ঈদে মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ নির্মাণ করছেন শিশির বিন্দু পার্ট ২, বুকভরা ভালোবাসা ২ ও ক্রেজি লাভার ২। এর আগে এত সিকুয়াল কখনো নির্মাণ করেননি এই পরিচালক। এ ব্যাপারে রাজ বলেন, ‘দর্শকের চাহিদাই কারণ। আমার তিনটি নাটকই দারুণ সাড়া পেয়েছিল দর্শকের কাছে। তাই নাটকগুলোর সিকুয়াল তৈরিতে আগ্রহী হয়েছি।’

এবার সিকুয়াল তৈরির আধিক্য নিয়ে এই পরিচালক বলেন, ‘এখন ইউটিউবে বিপুল হারে নাটক দর্শকেরা দেখছেন। কোনো কোনো নাটক টেলিভিশন প্রচারের পর ইউটিউবে তুলে দেওয়া হচ্ছে। ইউটিউবে ওঠার পর কিছু নাটক বেশি আলোচিত হচ্ছে। ইউটিউবে দর্শক ভিউ বা মন্তব্যের ঘরে গেলেই তা বোঝা যায়। ওই নাটকগুলো সিকুয়াল তৈরিতে পরিচালক, প্রযোজক ও চ্যালেন কর্মকর্তারা আগ্রহী হচ্ছেন।’

গত ঈদে মাবুরুর রশিদ বান্নার লেডি কিলার ও লুজারস আলোচিত হয়েছিল। এবার দুটি নাটকেরই সিকুয়াল তৈরি হচ্ছে। বান্না বলেন, ‘সারা পৃথিবীতেই নাটক সিনেমার সিকুয়াল হচ্ছে। যে জিনিস জনপ্রিয়তা পায় তা সিকুয়াল হবে, এটাই স্বাভাবিক। আগে আমাদের এখানে সিকুয়াল কম হতো। এখন বেশি হচ্ছে।’

এবারের ঈদে একাধিক সিকুয়ালের নায়ক হয়েছেন আফরান নিশো। সিকুয়াল নিয়ে তিনি বলেন, ‘বিশেষ দিবসের নাটকগুলোতে ইদানীং সিকুয়াল বেশি বাড়ছে। আমি মনে করি, ভালো কাজ হলে সিকুয়াল হতেই পারে। তবে খেয়াল রাখতে হবে, জোর করে দর্শকের ওপর যেন তা চাপিয়ে দেওয়া না হয়।’

এর আগে এক্স বয়ফ্রেন্ড, এক্স গার্লফ্রেন্ড, টম অ্যান্ড জেরি ১ ও টম অ্যান্ড জেরি ২ নির্মাণ করেছেন কাজল আরেফিন। তিনি বলেন, ‘জনপ্রিয় নাটকগুলোরই সিকুয়াল তৈরি হয়। সিকুয়াল থেকে নতুন দর্শকও তৈরি হয়। তবে অবশ্যই আগের গল্পের মান রক্ষা করে সিকুয়াল তৈরি করতে হবে। কিন্তু সব নাটকের মান রক্ষা হচ্ছে কি না, তা দেখার বিষয়।’

নাটকের সিকুয়াল বেড়ে যাওয়ার ব্যাপারে আরেক অভিনেতা অপূর্ব বলেন, ‘আমি মনে করি, এটি নাটকের জন্য ভালো। জনপ্রিয় নাটকের সিকুয়াল হলে নতুন দর্শক তৈরিরও সুযোগ থাকে।’

এনটিভির অনুষ্ঠান প্রধান মোস্তফা কামাল সৈয়দ বলেন, ‘উত্সবে সিকুয়াল তৈরি হচ্ছে। এটি খারাপ কিছু না। দর্শকনন্দিত নাটকগুলো ঘিরেই সিকুয়াল তৈরির চাহিদা থাকে। তবে আমার মনে হচ্ছে, কোনো নাটক হিট হলে দ্রুতই সিকুয়াল হয়ে যাচ্ছে। অনেক সময় গুণগত মান রক্ষা হচ্ছে না।’

এদিকে সিকুয়াল তৈরির ব্যাপারে ভিন্নমত দিলেন অভিনেতা জাহিদ হাসান। তিনি বলেন, ‘মনে হচ্ছে, জোর করে কিছু সিকুয়াল করা হচ্ছে। এই ঈদের জন্য আমার অভিনীত দুটি নাটকের সিকুয়াল করার প্রস্তাব ছিল, করিনি।’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে