ই-কমার্স ব্যবসায় সম্পৃক্ত সবাইকে নিবন্ধনের আওতায় আনা হবে

0
56
ই-কমার্স

আজ মঙ্গলবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানাতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব এসব কথা বলেন। মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনির্ধারিতভাবে ই-কমার্স নিয়ে আলোচনা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয় মন্ত্রিসভার বৈঠক। প্রধানমন্ত্রী ভার্চ্যুয়ালি বৈঠকে অংশ নেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ই-কমার্স তো বন্ধ করা যাবে না। সুতরাং এ-জাতীয় ব্যবসায় যারা জড়িত, তাদের সবাইকে নিবন্ধনের আওতায় এনে তদারক করতে হবে। এগুলো কীভাবে করা যাবে, সেই প্রক্রিয়াগুলোও মোটামুটি করা হয়েছে। এ বিষয়ে কাজ চলছে। দু-এক মাসের মধ্যে প্রক্রিয়াগত ভালো অগ্রগতি বলা যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। পাশাপাশি জনগণকেও সচেতন করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, গত কয়েক দিন আগে এক সভায় একটি কমিটি করে দেওয়া হয়েছে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একজন অতিরিক্ত সচিবকে কমিটির প্রধান করা হয়েছে। তাদের এক মাস সময় দেওয়া হয়েছিল। আশা করা হচ্ছে, ২০ দিনের মধ্যে কমিটি প্রতিবেদন জমা দেবে। বাণিজ্যমন্ত্রী ও সচিব দুজনই বলেছেন তাঁরা অনেক দূর এগিয়েছেন।

মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন আইন, ২০২১’-এর খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়। আইনের খসড়া অনুযায়ী, সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) অধীন অনুষ্ঠিত নিয়োগ পরীক্ষায় কেউ প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে জড়িত হলে তাঁকে সর্বনিম্ন ৩ বছর থেকে সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। একই সঙ্গে আর্থিক জরিমানাও গুনতে হতে পারে। এ ছাড়া আরও বিভিন্ন অপরাধের জন্য পৃথক শাস্তির বিধান রয়েছে।

বৈঠকে জাকাত তহবিল ব্যবস্থাপনা, আইন ২০২১-এর খসড়াও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এর মাধ্যমে কেউ চাইলে এই তহবিলের মাধ্যমেও জাকাত দিতে পারবেন। এ ছাড়া চট্টগ্রাম শাহি জামে মসজিদ আইন, ২০২১-এর খসড়াও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে