ইউরোপে যাবে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নরা

0
612
শিরোপা নিশ্চিত করার পর বসুন্ধরার খেলোয়াড়দের উল্লাস।
প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জেতায় ইউরোপ সফরে যাবে বসুন্ধরা কিংস।

 

বসুন্ধরা কিংস মানেই যেন চমক! ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ পর্যায়ে নাম লিখিয়েই একের পর এক চমক উপহার দিয়ে যাচ্ছে বসুন্ধরা। প্রথমবার খেলতে এসে দুই ম্যাচ হাতে রেখে কালই নিশ্চিত করেছে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা। লিগের আগে মৌসুমের প্রথম দুটি টুর্নামেন্ট খেলে দুইটিতেই খেলেছে ফাইনাল। ফেডারেশন কাপে রানার্সআপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকলেও ফেডারেশন কাপের অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন। মোটাদাগে বড় সাফল্য আছে আরও একটি। লিগে টানা ১৪ ম্যাচে জয়ের রেকর্ড কিংসদের।

একেবারে স্বপ্নের মতো একটা মৌসুম। যেন আসলাম, দেখলাম আর জয় করলাম! স্বীকৃতিস্বরূপ খেলোয়াড়দের পুরস্কার তো দিতেই হয়! অন্য কোনো ক্লাব হলে হয়তো আর্থিক পুরস্কারের ঘোষণা শোনা যেত। কিন্তু পুরস্কারের ক্ষেত্রেও বসুন্ধরা ব্যতিক্রম। পুরস্কারস্বরূপ ইউরোপ সফরে যাবে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নরা। ঈদের পর বসুন্ধরা দল ইউরোপ যাবে বলে জানিয়েছেন ক্লাবের সভাপতি ইমরুল হাসান। সুইজারল্যান্ডের দিকেই ক্লাব সভাপতির চোখ, ‘মৌসুমের শুরুতে খেলোয়াড়দের বলেছিলাম লিগ শিরোপা জিততে পারলে ইউরোপ সফরে নিয়ে যাওয়া হবে। এবার ছেলেদের পুরস্কার দেওয়ার পালা। পুরো বছর তারা অনেক পরিশ্রম করেছে। ঈদের পরে ইউরোপ সফরে যাবে দল। পছন্দের তালিকায় বেশ কয়েকটি দেশ আছে। আমাদের প্রথম পছন্দ সুইজারল্যান্ড।’

শিরোপা নিশ্চিত হলেও কিংসের বাকি আছে আরও দুই ম্যাচ। আর সে জন্য জমিয়ে রাখা হচ্ছে কিছু উৎসবও। নীলফামারী থেকে শিরোপা নিয়ে ফিরলেও ঢাকায় উৎসব করার পরিকল্পনা আছে তাদের। ৩১ জুলাই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে খেলবে শেষ ম্যাচ। সেদিন গ্যালারিতে আতশবাজি ফোটানোসহ র‍্যালি করার পরিকল্পনা আছে তাদের। ঘরোয়া ফুটবল থেকে চোখ উঠিয়ে তাদের সামনে নতুন মিশন এএফসি কাপ। এশিয়ান ফুটবল মঞ্চেও ছড়ি ঘোরাতে চায় তারা।

লিগ শেষেই শুরু হয়ে যাবে তাদের এএফসি কাপ মিশন। সেই লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পুরোনো খেলোয়াড়দের ধরে রাখার কাজটি সেরে ফেলেছে ইতিমধ্যে। এ ছাড়া কোস্টারিকার জার্সিতে রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলা দানিয়েল কলিন্দ্রসের সঙ্গে কয়েক মাস আগেই আগামী মৌসুমের জন্য চুক্তি সেরে ফেলেছে। নতুন মৌসুমে বসুন্ধরার ডাগআউটে থাকবেন পুরোনো স্প্যানিশ কোচ অস্কার ব্রুজোনই। স্প্যানিশ ট্রেনারের সঙ্গেও চুক্তি বাড়িয়েছে দেশীয় ফুটবলের সিংহাসনে বসা নতুন ক্লাবটি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.