আলোচনা শুধু মুখ্যমন্ত্রী পদ নিয়েই হতে পারে, বলল শিবসেনা

0
145

ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যে সরকার গঠন নিয়ে বিজেপির আগের জোটসঙ্গী শিবসেনার কাজিয়া থামছেই না। আজ শনিবার শিবসেনা আরও কঠোর অবস্থান নিয়ে বলেছে, কেবল মুখ্যমন্ত্রীর পদ নিয়েই আলোচনা হতে পারে। শিবসেনা এ কথাও বলে দিয়েছে, বিজেপিকে বাদ দিয়ে এখন সরকার গঠনের কথাও ভাবছে। হিন্দুস্তান টাইমস ও এনডিটিভির প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

গত ২১ অক্টোবরে অনুষ্ঠিত বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি একক বৃহত্তম দল হিসেবে আবির্ভূত হয়। বিজেপি-শিবসেনা এক সঙ্গেই নির্বাচন করেছিল। ২৮৮ আসনের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি ১০৫ আসন পায়। সরকার গঠনের জন্য তাদের আরও ৪০ আসন দরকার। নির্বাচনে দ্বিতীয় বৃহত্তম দল শিবসেনার আছে ৫৬ আসন। আর শারদ পাওয়ারের দল দ্য ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) আছে ৫৪, কংগ্রেসের ৪৪।

বিজেপিশাসিত এ রাজ্যে শিবসেনার সমর্থন ছিল। কিন্তু এবারের নির্বাচনের পর মুখ্যমন্ত্রীর পদ নিয়ে গোলযোগ শুরু হয়। শিবসেনা এবার মুখ্যমন্ত্রীর পদও চেয়ে বসে। তবে বিজেপি এ বিষয়ে কোনো ছাড় দিতে রাজি না।

আজ বার্তা সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শিবসেনার জ্যেষ্ঠ নেতা সঞ্জয় রাউত বলেছেন, ‘বিজেপির সঙ্গে যদি আলোচনা হয়ই তবে তা হতে হবে মুখ্যমন্ত্রীর পদ নিয়ে।’
গত সপ্তাহে বিজেপির মন্ত্রী সুধীর মুঙ্গানতিওয়ার বলেছেন, ৭ নভেম্বরের মধ্যে যদি সরকার গঠন না করা যায়, তবে রাজ্যে রাষ্ট্রপতির শাসন জারি হতে পারে।

বিজেপির মন্ত্রীর এ বক্তব্যের পর রাউত বলেছেন, মহারাষ্ট্রে যদি রাষ্ট্রপতির শাসন জারি হয় তবে তা বিজেপির আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত হবে।

এদিকে শিবসেনার মুখপত্র ‘সামনা’ পত্রিকায় আজ সম্পাদকীয়কে বলা হয়েছে, ‘বিজেপি যদি সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণে ব্যর্থ হয়, তবে শিবসেনা দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে সরকার গঠন করার দাবি করবে।’

সম্পাদকীয়তে বলা হয়, ‘এনসিপির ৫৪ বিধায়ক, কংগ্রেসের ৪৪ এবং কিছু স্বতন্ত্র প্রার্থী নিয়ে আমরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে পারব। শিবসেনা মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে একজনকে দাঁড় করাবে।’

শিবসেনা নেহাত না বোঝাপড়া করেই বিজেপিকে বাদ সরকার গঠনের হুমকি দিচ্ছে, বিষয়টি কিন্তু তা না। গতকালই এনসিপির মুখপাত্র নওয়াব মালিক বলেছেন, ‘বিজেপিকে বাদ দিয়ে মহারাষ্ট্রে যদি জনগণের সরকার হয়, তবে আমরা এটি ইতিবাচকভাবেই দেখব।’

আবার মহারাষ্ট্র রাজ্য কংগ্রেসের কয়েকজন নেতাও বলেছেন, বিজেপিকে ক্ষমতার বাইরে রাখতে কংগ্রেসের উচিত শিবসেনাকে সমর্থন দেওয়া।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে