আমেরিকায় ধেয়ে আসছে শীত

0
188
গত বছরের জানুয়ারি মাসে ওয়াশিংটনের একটি সড়ক। ছবি: এএফপি

আমেরিকার বড় অংশজুড়ে তীব্র শীত ধেয়ে আসছে। তাপমাত্রা কমে গিয়ে ১৭০ বছরের রেকর্ড ভাঙার কথা বলছে মার্কিন আবহাওয়া দপ্তর। পুরো আমেরিকার প্রায় দুই–তৃতীয়াংশ এলাকার তাপমাত্রা কমে যাবে এবং মানুষ ঠান্ডায় বড় ধরনের ঝুঁকির মধ্যে পড়বে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

সিএনএনের আবহাওয়াবিদ টেলর ওয়ার্ড বলেন, ‘আমরা আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এমন একটি প্যাটার্নে আছি, যেখানে কানাডাসহ মধ্য ও পূর্বাঞ্চলে শীতের ভয়াবহতা আমাদের দিকে ধাবিত হচ্ছে।’

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়, কাল রোববার থেকে আমেরিকার মধ্যাঞ্চলে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হবে। সোমবার থেকে বুধবার পর্যন্ত তাপমাত্রা দ্রুত বিপজ্জনক পর্যায়ে নেমে যাবে। সোমবার কোনো কোনো এলাকায় তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রি ফারেনহাইটে নেমে যেতে পারে। পূর্ব ও দক্ষিণ আমেরিকার কিছু এলাকায় তুষারপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

আবহাওয়া বিজ্ঞানীদের মতে, ক্রমবর্ধমান বৈশ্বিক তাপমাত্রা পরিবর্তনের কারণেই এ বছর বেশি পরিমাণে তুষারপাতের আশঙ্কা রয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে গ্রীষ্মে তীব্র গরম এবং শীতে হিমশীতল আবহাওয়া থাকছে। তীব্র শীত থাকবে উত্তরের সমভূমিতে। সেখানে তাপমাত্রা শূন্যের নিচে নেমে যেতে পারে। কুয়াশাযুক্ত বাতাস থাকবে। শীতের তীব্রতা থাকবে পুরো অঞ্চলে।

আবহাওয়াবিদেরা বলছেন, এ সপ্তাহে উত্তর মেরুজুড়ে আর্কটিক অঞ্চলে শীতের বিস্ফোরণ ঘটবে। নভেম্বরজুড়েই শীতের প্রকোপে আটকা পড়বে আমেরিকার মানুষ। এই হিম ঠান্ডা আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে। মৌসুমি শীতের পাশাপাশি মধ্য আমেরিকাজুড়ে ঝড় ও দমকা বাতাস থাকবে।

ওয়েদার চ্যানেলের আবহাওয়াবিদ জনাথন এরদম্যান টুইট করেছেন, এ বছরের নভেম্বরে আমেরিকার মানুষ জানুয়ারি মাসের শীতের স্বাদ অনুভব করবে।

লোকজনকে শীতের আগাম প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। এ সময়ে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কাউকে ঘরের বাইরে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে