আবেগে আপ্লুত শকুন্তলা দেবীর কন্যা

0
356
বিদ্য বালান ছবি: ইনস্টাগ্রাম থেকে

অনেকটা তাঁর মায়ের মতো। হাঁটাচলা, কথাবার্তা—সবকিছুতেই যেন মাকে খুঁজে পেলেন অনুপমা। শকুন্তলা দেবীর মেয়ে বলিউড অভিনেত্রী বিদ্যা বালানকে তাঁর মায়ের রূপে দেখে রীতিমতো আবেগে ভাসলেন।

লেখিকা ও মেন্টাল ক্যালকুলেটর শকুন্তলা দেবীর জীবনের ওপর ছবি নির্মাণ করা হচ্ছে। শকুন্তলা খ্যাত ভারতের ‘হিউম্যান কম্পিউটার’ নামে। খ্যাতনামা এই ব্যক্তিত্বের চরিত্রে দেখা যাবে বিদ্যা বালানকে। ইতিমধ্যে ছবিটির প্রথম টিজার মুক্তি পেয়েছে।

‘শকুন্তলা দেবী’রূপী বিদ্যাকে দেখে অভিভূত সবাই। এই বলিউড সুন্দরী টিজারেই সবার মন জয় করেছেন। সম্প্রতি লন্ডনে ধুমধাম করে ছবির শুটিং হয়েছে। শুটিং শুরুর প্রথম দিন সেটে শকুন্তলা দেবীর কন্যা অনুপমা ব্যানার্জি, তাঁর স্বামী ও তাঁর মেয়ে উপস্থিত ছিলেন। মাকে নিয়ে ছবি, তাই শুরুটা মিস করতে চাননি অনুপমা। তাই শুরুর দিনের শুটিংয়েই হাজির। বিদ্যাকে তাঁর মায়ের রূপে দেখে হতবাক হয়ে যান অনুপমা। শুধু লুকেই বিদ্যা তাঁর মন জয় করেননি। এই বলিউড সুন্দরীর অভিনয়ে অনুপমা তাঁর মাকে যেন খুঁজে পেয়েছেন। শকুন্তলা দেবীর বাচনভঙ্গি, শরীরী ভাষা—সবকিছুই অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে ফুটিয়ে তুলেছিলেন বিদ্যা। তাই অনুপমার কণ্ঠে বিদ্যার শুধু প্রশংসা। মায়ের চরিত্রে বিদ্যাকে দেখে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন শকুন্তলা দেবীর কন্যা।

শকুন্তলা দেবীর প্রতিভা সারা বিশ্বকে অবাক করেছিল। কম্পিউটারের মতো দ্রুতগতিতে কাজ করত তাঁর মাথা। শৈশব থেকেই নিমেষে যেকোনো গণনা করে ফেলতে পারতেন এই গণিতবিদ। যদিও শকুন্তলা দেবী কোনো প্রথাগত শিক্ষা নেননি। বিশ্বের কাছে তাঁর পরিচয় ছিল ‘ম্যাথ জিনিয়াস’ হিসেবে। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে শকুন্তলা দেবীর এই গাণিতিক দক্ষতার কথাও উঠে এসেছে। অনু মেনন পরিচালিত এই বায়োপিকটি আগামী বছর গ্রীষ্মে মুক্তি পাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে