অল্পের জন্য সংঘর্ষ থেকে রক্ষা পেল ট্রেন দুটি

0
193
অল্পের জন্য সংঘর্ষ থেকে রক্ষা পায় দুটি ট্রেন। আড়ানী রেলস্টেশন, বাঘা, রাজশাহী, ২৮ নভেম্বর। ছবি: সংগৃহীত

একই লাইনে মুখোমুখি হতে যাচ্ছিল দুটি ট্রেন। একটি ট্রেন রেলস্টেশনে দাঁড়িয়ে ছিল। আরেকটি ঢুকছিল। চলন্ত ট্রেনের চালক বিষয়টি বুঝতে পারায় স্টপেজ না থাকলেও মাত্র ১৫ গজ দূরে তিনি ট্রেনটি থামিয়ে দিতে সক্ষম হন। এতে মুখোমুখি সংঘর্ষের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে যাত্রীবাহী দুটি ট্রেন।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী রেলস্টেশনে এ ঘটনা ঘটে। ট্রেন দুটি হচ্ছে সিরাজগঞ্জগামী মেইল ট্রেন ও রাজশাহীগামী কপোতাক্ষ আন্তনগর এক্সপ্রেস। এ ঘটনায় স্টেশনমাস্টার ও পয়েন্টম্যানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

আড়ানী রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা সিরাজগঞ্জগামী সিক্স ডাউন মেইল ট্রেন আড়ানী রেলস্টেশনে দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় খুলনা থেকে ছেড়ে আসা কপোতাক্ষ আন্তনগর ট্রেন রাজশাহীর উদ্দেশে আসছিল। কপোতাক্ষ আন্তনগর ট্রেনটি অতিক্রম করার জন্য ২ নম্বর লাইন ক্লিয়ার করার কথা থাকলেও তা না করে ১ নম্বর লাইন ক্লিয়ার ছিল। ফলে ১ নম্বর লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনটির মুখোমুখি হয় কপোতাক্ষ আন্তনগর ট্রেনটি। কিন্তু কপোতাক্ষ আন্তনগর ট্রেনের চালক রুহুল আমিন ওরফে সিরাজ দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনটি দেখতে পেয়ে মুখোমুখি হওয়ার ১৫ গজ দূরে থামিয়ে দেন। এ সময় ট্রেনের যাত্রীদের মধ্যে ছোটাছুটি ও আতঙ্ক দেখা দেয়। পরে কপোতাক্ষ আন্তনগর ট্রেন পেছনে সরিয়ে ২ নম্বর লাইন দিয়ে রাজশাহীর উদ্দেশে ছাড়া হয়।

খুলনা থেকে কপোতাক্ষ আন্তনগর ট্রেন রাজশাহীর উদ্দেশে ছাড়ে সকাল সাড়ে ছয়টায়। আড়ানী রেলস্টেশন অতিক্রম করার সময় ট্রেনটি দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনের মুখোমুখি হয় ১২টা ২০ মিনিটে। পরে ১২টা ৫৩ মিনিটে রাজশাহীর উদ্দেশে ছেড়ে যায়। এদিকে সিক্স ডাউন মেইল ট্রেনটি রাজশাহী থেকে সিরাজগঞ্জের উদ্দেশে ছাড়ে সকাল সাড়ে ১০টায়। আড়ানী রেলস্টেশনে এসে পৌঁছে ১২টা ৪ মিনিটে। পরে বেলা ১টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে যায়।

আড়ানী রেলস্টেশনের স্টেশনমাস্টার একরামুল হক বলেন, পয়েন্টম্যানের ভুলের কারণে ঘটনাটি ঘটেছে। ভুলবশত ২ নম্বর লাইনের ট্রেনকে তিনি ১ নম্বর লাইনে ক্লিয়ার দিয়েছিলেন।

মুঠোফোনে পয়েন্টম্যান রওশন আলীর সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তিনি সাংবাদিকের সঙ্গে কথা বলতে চাননি।

কপোতাক্ষ আন্তনগর ট্রেনের চালক রুহুল আমিন বলেন, আড়ানী স্টেশনে কপোতাক্ষ আন্তনগর ট্রেনের স্টপেজ নেই। নিয়ম অনুযায়ী ট্রেন চলছিল। আড়ানী রেলস্টেশনের পূর্ব দিকের পয়েন্ট পার হওয়ার পর তিনি দেখতে পান যে লাইন দিয়ে ট্রেন যাচ্ছে, সেই লাইনে আরেকটি ট্রেন দাঁড়িয়ে আছে। তিনি কৌশলে ট্রেনটির মুখোমুখি হওয়ার আগে থামিয়ে দিয়েছেন।

সিক্স ডাউন ট্রেনের চালক রাজু আহম্মেদ বলেন, ‘যে লাইনে আমার ট্রেন দাঁড়িয়ে ছিল, সেই লাইন দিয়ে আরেকটি ট্রেন আসা দেখে যাত্রীরা ছোটাছুটি শুরু করে। ফলে ট্রেনের যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়, কিন্তু আমার কিছুই করার ছিল না।’

এ বিষয়ে সন্ধ্যায় পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক মিহির কান্তি গুহ বলেন, এ ঘটনায় স্টেশনমাস্টার একরামুল হক ও পয়েন্টম্যান রওশন আলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে দুই দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে