অবশেষে সাকিবের ব্যাটে রান

0
192

লম্বা বিরতি ব্যাটিংয়ে একটু হলেও মরচে ধরে। সাকিব আল হাসানের ব্যাটে সেটা একটু বেশিই ধরেছিল। বঙ্গবন্ধু টি২০ কাপে চেষ্টা করেও তাই বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। নয় ম্যাচ খেলে সর্বোচ্চ ২৮ রানের ইনিংস ছিল জেমকন খুলনার হয়ে। জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু হলে নেটে বেশি সময় দিয়েছেন ব্যাটিংয়ে। এর পরও আস্থা ফিরে পেতে কষ্ট কম করতে হয়নি। গতকাল নিজেদের দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে ৫২ রানের ইনিংস খেলতে বাঁহাতি এই অলরাউন্ডারের লেগেছে ৮২ বল। এক ঘণ্টা ৪৬ মিনিট ক্রিজে ছিলেন তিনি। তার রানে ফেরার ম্যাচে জিতেছে তামিম একাদশ। মাহমুদুল্লাহ একাদশের ২২৩ রান মোকাবিলা করেছে তিন টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানের দাপুটে ইনিংসে।

বিকেএসপির চার নম্বর মাঠে ৪৫ ওভারের ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সাত উইকেটে ২২৩ রান করে মাহমুদুল্লাহ একাদশ। নাঈম শেখ ৫০ রান করেন ৬৮ বলে। দ্বিতীয় ম্যাচেও রান পাননি মুশফিক। ২৫ করে আউট হন তিনি। মোসাদ্দেকের ব্যাট থেকে এসেছে ৩১ রান। জবাবে তামিম-লিটন ৭৭ রানের জুটি করেন। লিটন ৫৩ বলে ৪৮ রান নিয়ে সাজঘরে ফিরলেও তামিম খেলেছেন ৮০ বলে ৮০ রানের ইনিংস। নাজমুল হোসেন শান্ত ৫১ বলে করেন ৬১ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
(৪৫ ওভারের ম্যাচ) মাহমুদুল্লাহ একাদশ: ২২৩/৭, ৪৫ ওভার (নাঈম ৫০, ইয়াসির ২৪, সাকিব ৫২, মুশফিক ২৫, মোসাদ্দেক ৩১; সাইফউদ্দিন ২/৬২, মেহেদী ২/৩১, মুস্তাফিজ ১/৩৭, রুবেল ১/৪৪, নাসুম ১/৩৩)

তামিম একাদশ: ২২৪/২, ৩৫.২ ওভার (লিটন ৪৮, তামিম ৮০, শান্ত ৬১, মিঠুন ১৭*, সৌম্য ১২*; তাসকিন ১/৪৫, হাসান ১/৩১)
ফল: তামিম একাদশ ৮ উইকেটে জয়ী

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.