অনুমতি ছাড়া অনুপস্থিতিতে বেতন কাটা যাবে সরকারি কর্মচারীর

0
129

কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কোনো সরকারি কর্মচারী নিজ কাজে অনুপস্থিত থাকতে পারবেন না। এই বিধান লঙ্ঘন করলে কারণ দর্শানোর সুযোগ দিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মচারীর প্রতিদিনের অনুপস্থিতির জন্য এক দিনের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ কাটা যাবে।

এই বিধান রেখে ‘সরকারি কর্মচারী (নিয়মিত উপস্থিতি) বিধিমালা, ২০১৯ চূড়ান্ত করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে বিধিমালাটি দেওয়া হয়েছে।

বিধিমালা অনুযায়ী, কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কোনো সরকারি কর্মচারী অফিস চলাকালীন অফিস ত্যাগ করতে পারবেন না। অবশ্য জরুরি প্রয়োজন হলে সহকর্মীকে জানিয়ে অফিস ত্যাগ করা যাবে। তবে তার কারণ ও সময় রেজিস্ট্রারে লিপিবদ্ধ করতে হবে। যুক্তি সংগত কারণ ছাড়া বিলম্বে অফিসে আসা যাবে না। দুই দিন বিলম্বে অফিসে আসলে ওই কর্মচারীর একদিনের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ কেটে রাখা যাবে। তবে এ জন্য কারণ দর্শানোর সুযোগ দেওয়া হবে।

বিধিমালা অনুযায়ী, ৩০ দিনের মধ্যে এই ধরনের অপরাধ একাধিকবার করলে কর্তৃপক্ষ ওই কর্মচারীর সর্বোচ্চ সাত দিনের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ কাটতে পারবে। মাসিক বেতন থেকে দণ্ডের অর্থ আদায় করা হবে। তবে এসব বিষয়ে পুনর্বিবেচনার আবেদনের সুযোগ রাখা হয়েছে এই বিধিমালায়।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, এ ধরনের ব্যবস্থা আগেও ছিল। কিন্তু তা মানা হতো না। আবার সাময়িক শাসনের সময় করা এসব বিষয় বিলুপ্ত করার সিদ্ধান্ত রয়েছে । তারই আলোকে নতুন করে বিধিমালা করার সিদ্ধান্ত হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে