অনলাইনে বাইবেল পাঠের আসরে যৌন নির্যাতনের ছবি, জুমের বিরুদ্ধে মামলা

0
79
জুম

লকডাউনের কারণে গির্জায় যাতায়াত বন্ধ। তাই অনলাইনে বাইবেল পাঠের আয়োজন করেছিল যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার একটি গির্জা। সহায়তা নেওয়া হয়েছিল ভিডিও চ্যাটিং মাধ্যম জুমের। কিন্তু হঠাৎই হ্যাকারের দখলে চলে যায় বাইবেল পাঠের সেই আয়োজন। পর্দায় ভেসে ওঠে শিশুর ওপর যৌন নির্যাতনের ছবি। এরই প্রতিক্রিয়ায় ভিডিও চ্যাটিং কোম্পানি জুমের বিরুদ্ধে মামলা করেছে গির্জা কর্তৃপক্ষ।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের সান ফ্রান্সিসকো শহরের প্রাচীন গির্জাগুলোর একটি সেন্ট পলাস লুথেরান চার্চ। গত ৬ মে জুমের মাধ্যমে বাইবেল পাঠের আয়োজন করে গির্জা কর্তৃপক্ষ। এতে যারা অংশ নিয়েছিলেন তারা সবাই ছিলেন বয়স্ক। পাঠচক্র চলার ৪২ মিনিট পর এর নিয়ন্ত্রণ নেয় হ্যাকার।

পাঠচক্রে যারা অংশ নিয়েছিলেন তারা সে সময় কম্পিউটারের ওপর নিজেদের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। সবার পর্দায় ভেসে ওঠে শিশুর ওপর যৌন নির্যাতনের অস্বস্তিকর ছবি।

বিবিসি জানিয়েছে, এ ঘটনায় সেন্ট পলাস লুথেরান চার্চ গত বুধবার সান হোসের ফেডারেল আদালতে মামলা করে। তাতে বলা হয়, এমন আপত্তিকর ঘটনার পর সহায়তা চেয়ে গির্জা কর্তৃপক্ষ জুম কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে। কিন্তু জুমের পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপই নেওয়া হয়নি।

মামলায় বলা হয়েছে, একজন পরিচিত অপরাধী এই হ্যাকিংয়ের সঙ্গে জড়িত। তার বিরুদ্ধে এর আগেও কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিকবার অভিযোগ করা হয়েছিল।

তবে জুমের পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘বাইবেল পাঠচক্রের সময় যা ঘটেছে তা অত্যন্ত নিন্দাজনক ঘটনা। যেদিন এ ঘটনা ঘটেছে সেদিনই আমরা জানতে পেরেছি। সঙ্গে সঙ্গে অপরাধীর অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দেওয়া হয়েছে। যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অপরাধী সম্পর্কে তথ্য দেওয়া হয়েছে।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও শক্তিশালী করে জুমের আপডেট ভার্সন প্রকাশ করা হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে লকডাউনের কারণে বাড়ি থেকে বের হওয়ার উপায় নেই। এমন পরিস্থিতিতে ব্যাপকহারে বেড়ে গেছে জুমের ব্যবহার।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে